দীর্ঘদিন ধরেই যানবাহন বন্ধ রণগ্রাম ব্রিজে, দ্রুত চালুর দাবীতে অধীর চৌধুরীর ‘একলা চলো’ পদযাত্রা

0
52

জৈদুল সেখ, মুর্শিদাবাদঃ

নতুন করে রণগ্রাম ব্রিজের দাবিতে গোকর্ণ থেকে পুরন্দপুর পর্যন্ত দীর্ঘ ছয় কিলোমিটার ‘একলা চলো’ পদযাত্রা করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। মুর্শিদাবাদের কান্দি-বহরমপুর যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম রণগ্রাম ব্রিজ। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে এই ব্রিজের উপর যান চলাচল বন্ধ থাকায় ভোগান্তিতে কয়েক লক্ষ মানুষ। এই ব্রিজের মেরামতির বিষয়ে অতীতেও বারবার সুর চড়িয়েছেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

Ranagram Bridge
এই সেই ব্রিজ। নিজস্ব চিত্র

কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে এই রণগ্রাম ব্রিজের মেরামতির দাবিতে কান্দি এসডিও অফিসে পদযাত্রা করে গিয়ে ডেপুটেশন জমা দেওয়ার পরিকল্পনা ছিল কংগ্রেসের তরফে। সেই মতো কান্দির বিভিন্ন প্রান্তে এলাকায় এলাকায় মাইকিং ও পথসভার মাধ্যমে জোর কদমে প্রচারও শুরু হয়েছিল। তবে ২৮ শে অক্টোবর মাসে প্রশাসনের তরফে পদযাত্রায় অনুমতি দেওয়া হলেও ৮ নভেম্বর প্রশাসন সেই পদযাত্রার অনুমতি বাতিল করে দেওয়া হয়।

Adhir Choudhury
অধীর রঞ্জন চৌধুরী। নিজস্ব চিত্র

গত শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠক করে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন আসলে এটা রাজনৈতিক চক্রান্ত। তারপর কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরী একাই পদযাত্রার সিদ্ধান্ত নেয়। সেইমতো সোমবার রবীন্দ্র মূর্তির পাদদেশ থে‌কে গোকর্ণ থেকে পুরন্দপুর পর্যন্ত পদযাত্রা করেন।

উল্লেখ্য, বহরমপুর শহরের সঙ্গে কান্দি মহকুমার সালার ,ভরতপুর, কান্দি ও খড়গ্রাম ব্লকের প্রধান ভরসা দ্বারকা নদীর উপর রণগ্রাম ব্রিজ। কিন্তু সেই ব্রিজ দীর্ঘদিন ধরেই বেহাল। পাশেই তৈরি হচ্ছিল নতুন ব্রিজ। সেই কাজ চলার জন্য সমস্ত গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। প্রসঙ্গত বহরমপুর থেকে বীরভূম ও বর্ধমান যাওয়ার জন্য কান্দি- বহরমপুর রাজ্য সড়কের উপর নির্ভর করতে হয়। বর্তমানে প্রায় ৩০ কিলোমিটার ঘুরে যেতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। প্রশাসনের দাবি, খুব তাড়াতাড়ি সমস্যার সমাধান হবে। কিন্ত প্রশাসন সূত্রের খবর পাশে নতুন ব্রিজের নকশা ভুল থাকায় দীর্ঘদিন থেকেই বন্ধ রয়েছে কাজ। এখনো পর্যন্ত সাধারণ মানুষের কাজে অজানা আদো ব্রিজ তৈরি হবে কী না? আর কাজ শুরু হলেও তা কবে হবে?

আরও পড়ুনঃ তিনদিনের সফরে সোমবার কলকাতায় আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত

এবার সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই মুখ খুললেন বহরমপুরের সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী। তিনি বলেন করোনা বিধি মেনে পদযাত্রার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল কংগ্রেসের তরফে তখন প্রশাসনের তরফে ২৮ শে অক্টোবর সম্মতি মিলেছিল পদযাত্রার বিষয়ে। এরপর একমাসের মধ্যে রূপ বদলে যায় প্রশাসনের। ১১ই নভেম্বর কান্দির এসডিও অফিসের তরফে প্রতিবাদ কর্মসূচি ক্ষেত্রে বিরোধিতা করা হয়।

আরও পড়ুনঃ মালয়েশিয়ায় শ্রমিকের কাজ করতে গিয়ে মৃত্যু মুর্শিদাবাদের যুবকের, অসহায় পরিবারের পাশে পঞ্চায়েত

বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতার কথায়, দুর্গাপুজো, কালীপুজো, ছটপুজোর মতো উৎসবগুলিতে বিপুল জনসমাগম ঠেকাতে প্রশাসন অপারক। শুধুমাত্র কংগ্রেসের কর্মসূচির ক্ষেত্রেই বিরোধিতা করা হচ্ছে। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বলেন, শুধু মাত্র মুর্শিদাবাদ নয়, পুরো রাজ্যে কংগ্রেস শূণ্য হয়ে যাওয়ার পরেও শাসক দল প্রতিহিংসার রাজনীতি করছে। অধীরবাবু জানান, রণগ্রাম ব্রিজের মেরামতির দাবিতে কংগ্রেসের পদযাত্রার অনুমতির বিষয়ে তিনি মুখ্যমন্ত্রীর কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন এবং মুখ্যমন্ত্রীর সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছেন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here