‘দিদি ও দিদি’র পাল্টা ‘নরেন ও নরেন’, কটাক্ষ অনুব্রতর

0
59

নিজস্ব সংবাদদাতা, ওয়েব ডেস্কঃ

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে প্রধানমন্ত্রীর সম্বোধন ‘দিদি, ও দিদি’, যা নিয়ে সমালোচনার ঝড় রাজ্য রাজনীতিতে। এবার প্রধানমন্ত্রীর এই সম্বোধনের পালটা দিলেন বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। তাঁর কথায়, “আমি যদি প্রধানমন্ত্রীকে বলি, ‘নরেন ও নরেন’, তাহলে মানুষ আমাকে কি ভাল বলবে?” পাশাপাশি তাঁর অভিযোগ, “প্রধানমন্ত্রীর ভাষাজ্ঞান নেই।”

anubrata mondal | newsfront.co
ফাইল চিত্ৰ

প্রধানমন্ত্রীর ‘দিদি, ও দিদি’ সম্বোধনকে নারী বিদ্বেষমূলক বলে দাবি করেছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। সাংবাদিক বৈঠক করে নিজেদের ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তাঁরা। টুইট করে তীব্র সমালোচনা করেছেন বাগ্মী তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। তাতেও দমেননি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিভিন্ন সভা থেকে একইভাবে মুখ্যমন্ত্রীকে সম্বোধন করে চলেছেন তিনি। এবার সেই সম্বোধনের পালটা হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর ‘নামকরণ’ করলেন বীরভূমের দাপুটে নেতা তথা তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডল।

আরও পড়ুনঃ জরুরী তলব পেয়ে দিল্লির পথে বিবেক দুবে

মঙ্গলবার পূর্ব বর্ধমান জেলার ভাতার বাজারে হাইস্কুল মাঠে দলীয় জনসভা ছিল অনুব্রত মণ্ডলের। সেই সভা থেকেই প্রধানমন্ত্রীর ‘দিদি, ও দিদি’ সম্বোধন নিয়ে এদিন মুখ খোলেন তিনি। পাশাপাশি তিনি আরও বলেন,”প্রধানমন্ত্রী একজন মহিলাকে বলছে, ‘দিদি, ও দিদি’। লজ্জা লাগা দরকার। নরেন্দ্র মোদির ভাষাজ্ঞান নেই।”

এই সভা থেকে বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে একের পর তীব্র অভিযোগ তোলেন অনুব্রত।তিনি বলেন, “২০১৪ সালে লোকসভা ভোটের আগে নরেন্দ্র মোদি যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তার একটাও পালন করেনি। আর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আঁচল ভরে উন্নয়ন নিয়ে যান।” সভা থেকে অনুব্রতর কটাক্ষ, “দেশের জন্য কোনও ভাল কাজ করেননি নরেন্দ্র মোদি। তাতেও গদি ছাড়বে না। এবার ছারপোকা দিয়ে গদি ছাড়াতে হবে।”

আরও পড়ুনঃ কলকাতার ভোটের আগে একসঙ্গে ৮ রিটার্নিং অফিসারকে সরিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন

এদিনের সভা থেকে নাম না করে শুভেন্দু অধিকারীকেও একহাত নেন অনুব্রত। বলেন, “আমি দলের সামান্য কর্মী। আমি যদি নেতা হতাম তাহলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বেইমানি করতাম। আমিও একটা মীরজাফর হতাম ।আমি এমএলএ নই, এমপি নই, আমি কাউন্সিলরও নই। আমি শুধু দলের কর্মী।”এদিনের সভা থেকে অনুব্রত চ্যালেঞ্জ ছোড়েন, “তৃতীয় দফার ভোটে আমরা ৩১টির মধ্যে ৩১টি আসনেই জিতব। চ্যালেঞ্জ করছি এবারের নির্বাচনে আমরা ২২০ থেকে ২৩০ টা আসন পাব।”

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485