বিদ্যালয় প্রধানদের সংগঠনের শিক্ষা ও সংগঠনগত বিশেষ আলোচনা সভা

0
27

নিজস্ব সংবাদদাতা, মেদিনীপুরঃ

অ্যাডভান্সড সোসাইটি ফর হেডমাস্টারস অ্যান্ড হেডমিস্ট্রেসেস (এ এস এফ এইচ এম)-এর পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা শাখার উদ্যোগে সোমবার মেদিনীপুর শহরের একটি সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হলো শিক্ষা ও সংগঠনগত বিষয়ে বিশেষ আলোচনা সভা।সভায় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের রাজ্য সভাপতি ড. হরিদাস ঘটক, রাজ্য সাধারণ সম্পাদক  চন্দন কুমার মাইতি, রাজ্য সহ-সভাপতি তাপস কুমার দে, জেলা পর্যবেক্ষক তপন কুমার দে, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা কমিটির সভাপতি ড. অমিতেশ চৌধুরী, জেলা সম্পাদক ভূপাল প্রসাদ চক্রবর্তী ও শুভাশিস  দত্ত সহ কেন্দ্রীয় কমিটির বেশ কয়েক জন সদস্য ।জেলার প্রায় দেড় শতাধিক সদস্য সদস্যার উজ্জ্বল উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত  হ’ল ‘এ এস এফ এইচ এম’-এর পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা শাখার বিশেষ সাধারণ সভা ।

নিজস্ব চিত্র

এদিন  দুই মহাপুরুষ পণ্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর  ও বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। এরপর একটি চারাগাছ রোপণ ও জল‌ সিঞ্চনের মাধ্যমে সবুজ শ্যামল পৃথিবী গড়ার ও তার রক্ষণাবেক্ষণের শপথ নেওয়া হয়।অনুষ্ঠানের সভাপতি ড. অমিতেশ চৌধুরীর উদ্বোধনী সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের মূল সুর সঞ্চারিত করেন।এরপর জেলা সম্পাদক ভূপাল প্রসাদ চক্রবর্তী তাঁর স্বাগত বক্তব্য রাখেন।অনুষ্ঠানের মূল আলোচক তথা রাজ্য সাধারণ সম্পাদক  চন্দন কুমার মাইতি তাঁর সুদীর্ঘ, তথ্যনিষ্ঠ বক্তব্য  স্বভাবসিদ্ধ বাগ্মিতায় সভার আলোচনাকে এক উচ্চমাত্রায়  পৌঁছে দেন। তাঁর আলোচনায় বর্তমান শিক্ষা ব্যবস্থায় বিভিন্ন অসুবিধা, ভিন্ন ভিন্ন সমস্যা ও তার প্রতিবিধান, আশা ও আশঙ্কা, সংগঠনের বিস্তার ও তার ভবিষ্যৎ কর্ম-পরিকল্পনা, রাজ্য সংগঠনের স্থায়ী ঠিকানাসহ একটি অফিসঘর ক্রয় এবং  একটি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি গঠন ও তার রেজিস্ট্রেশন সংক্রান্ত বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্ৰহণের প্রয়োজনীয়তা, বর্তমান সময়ে সীমাহীন পাহাড়প্রমাণ সরকারি কাজের চাপ, প্রধান শিক্ষক ও প্রধান শিক্ষিকাদের ন্যায্য অধিকার ও দাবী থেকে অনৈতিক বঞ্চনা ও যুক্তিহীন আইনী জুলুম ইত্যাদি — বিভিন্ন বিষয় উঠে আসে । উপস্থিত সদস্য-সদস্যারা ভীষণভাবে প্রাণিত ও উৎসাহিত হন রাজ্য সাধারণ সম্পাদকের তেজস্বী বক্তব্যে।

আরও পড়ুনঃ India Book Of Record এ নাম তুললো মুর্শিদাবাদ জেলার ভগবানগোলার Google Child

রাজ্য সভাপতি ড. হরিদাস ঘটক শিক্ষা ব্যবস্থার অতীত থেকে বর্তমান আনুপূর্বিক পুঙ্খানুপুঙ্খ বিবরণ দেন ও বিশ্লেষণ করেন। সংগঠনের বিষয়েও আলোচনা করেন ও সুনির্দিষ্ট পরামর্শ দেন। জেলা পর্যবেক্ষক তপন কুমার দে তাঁর স্বল্প ও আকর্ষণীয় বক্তব্যে সদস্য সদস্যাদের উজ্জ্বীবিত করেন । “মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তথা রাজ্য সহ-সভাপতি তাপস কুমার দে অত্যন্ত প্রাঞ্জল ভাষায় কো-অপারেটিভ নিয়ে সংগঠনের  ভাবনা, পরিকল্পনা ও কর্মপদ্ধতি বিষয়ে সবিস্তারে আলোচনা করেন ও সদস্য-সদস্যাদের  কো-অপারেটিভের সদস্যপদ গ্ৰহণ করতে উৎসাহিত করেন।আজকের অনুষ্ঠানে আজীবন সদস্য-পদ গ্রহণকারীদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয় । রাজ্য সভাপতি, রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সহ বিশিষ্ট অতিথিরা তাঁদের হাতে একটি করে টব-সুদ্ধ গোলাপের চারা তুলে দেন। অসাধারণ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানটিকে শুধু উচ্চমাত্রায় পৌঁছে দেওয়া নয়, সর্বাঙ্গসুন্দর করে তুলতে অনবদ্য ভূমিকা পালন করেন সূর্যকান্তি নন্দ  ও পলি পাহাড়ী।অন্তিম পর্বে সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে ও সংগীত পরিবেশন করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন সভাপতি ড. অমিতেশ চৌধুরী।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here