সাঁতরে ওষুধ পৌঁছে নজির গড়লেন এক মহিলা, আশাদিদিদের কাজে গর্বিত স্বাস্থ্যদফতর

0
32

নিজস্ব প্রতিবেদন, নিউজ ফ্রন্টঃ

এক বুক জল সাঁতরে ওষুধ পৌঁছে দিলেন এক আশাকর্মী। ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটালে। একজন আশাদিদি সাঁতরে ওষুধ পৌঁছে দিয়েছেন। অন্যজন নিজেই নৌকা চালিয়ে ওষুধ নিয়ে পৌঁছে গিয়েছেন দুর্গতদের কাছে। ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে ঘাটালের ওই দুই আশাদিদির ছবি। আর তা নিয়েই স্বাস্থ্য দফতরে শুরু হয়েছে চর্চা। ওই আশাদিদিদের প্রশংসায় পঞ্চমুখ পশ্চিম মেদিনীপুরের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ভুবনচন্দ্র হাঁসদা।

Asha Worker
ছবি সৌজন্যে: আনন্দবাজার পত্রিকা

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘শুধু বর্তমান পরিস্থিতিতে নয়, এর আগেও জেলার আশাকর্মীরা এভাবে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বহু কাজ করেছেন। যেভাবে বন্যা পরিস্থিতির মধ্যে সাঁতরে বা নৌকা চালিয়ে রোগীর বাড়িতে ওষুধ পৌঁছে দিচ্ছেন, তাতে সত্যিই ঘাটালের ওই আশাকর্মীদের কুর্ণিশ জানাতে হয়। আশাকর্মীদের এহেন কাজে গর্বিত স্বাস্থ্য দফতর।’’

কয়েকদিন আগে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিংয়ে এমনই এক ঘটনা ঘটেছিল। সেখানেও প্রশংসা কুড়িয়েছিলেন আশাকর্মীরা। বন্যার জলে ভেসে গিয়েছিল গোটা এলাকা। এক বুক জলের মধ্যে একটি বড় মুখওয়ালা হাঁড়িতে একটি শিশুকে শুইয়ে আশাকর্মীদের কাছে পোলিও টিকা খাওয়াতে নিয়ে এসেছিলেন শিশুটির বাবা। আর এক কোমর জলে দাঁড়িয়ে শিশুটিকে পোলিও টিকা খাইয়েছিলেন এক আশাকর্মী। এমন কাজ করেছিলেন আরও অনেকে। এই ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। আশাদিদিদের এই কাজের প্রশংসা করেছেন নেটিজেনরাও।

আরও পড়ুনঃ ভোররাতে ভয়াবহ ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল পাকিস্তান, মৃত কমপক্ষে ২০

ক্যানিংয়ের পর এবার খবরের শিরোনামে ঘাটাল। ঘাটালের বলরামপুরের বাসিন্দা আশাকর্মী শ্যামলী মান্না সাঁতরে ওষুধ পৌঁছে দিলেন রোগীর বাড়ি। আনন্দবাজারে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, শ্যামলী বলরামপুরের স্থানীয় বাসিন্দা হওয়ায় সেই এলাকার বেশ কয়েকজন যে জ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন, সেই খবর ছিল তাঁর কাছে। তাই শ্যামলী জানতেন, যেভাবেই হোক ওই আক্রান্তদের কাছে ওষুধ পৌঁছে দিতে হবে। কিন্তু মঙ্গলবার সকালে শ্যামলী যখন ওষুধ হাতে নিয়ে বেরলেন, তখন দেখলেন সেই এলাকায় একটা নৌকাও নেই।

আরও পড়ুনঃ ফের নিম্নচাপের ভ্রুকুটি, পুজোয় অষ্টমী থেকে দশমী বৃষ্টির পূর্বাভাস আবহাওয়া দপ্তরের

জলমগ্ন ঘাটালে এখন একমাত্র যাতায়াতের মাধ্যম নৌকা। তাই নৌকার জন্য অপেক্ষা না করেই সাঁতার কেটে আক্রান্তদের কাছে ওষুধ পৌঁছে দিয়েছেন শ্যামলী। অন্যদিকে, ঘাটাল থানার রথিপুর এলাকায় রীতা দোলই নামে এক আশাকর্মী নিজে নৌকা চালিয়ে আক্রান্তদের কাছে ওষুধ পৌঁছে দিয়েছেন। ঘাটালের এই দুই আশাকর্মী শ্যামলী ও রীতার ভূমিকা স্বাস্থ্য দফতরের মুখ উজ্জ্বল করেছে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here