বিশ্বভারতীর ঘটনা নিয়ে সরব বিখ্যাত বাউল

0
47

পিয়ালী দাস, বীরভূমঃ

বিশ্বভারতী জুড়ে সাধারণ মানুষের একটাই স্লোগান এমন বিদ্যুতের উৎসব দরকার নেই , যে বিদ্যুৎ সবকিছুকে পুড়িয়ে ছারখার করে দিচ্ছে ৷ আলোর বদলে নিকষ কালো অন্ধকারে ঢেকে দিচ্ছে গুরুদেব রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সাধের শান্তিনিকেতনকে ।

সোমবার পৌষ মেলার মাঠে প্রাচীর দেওয়া কে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার কান্ড বেঁধেছিলো, মঙ্গলবার সকাল থেকে তা অনেকটাই স্তিমিত। ইতিমধ্যে শান্তিনিকেতন থানার পুলিশ বিশ্বভারতীর গেট ভাঙার জন্য স্বতঃপ্রণোদিত মামলা করে ভাঙচুরের ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে ৮ জন কে গ্রেফতার করেছে। পাল্টা বিশ্বভারতীর তরফের শান্তিনিকেতন থানায় তৃণমূল কংগ্রেসের দুবরাজপুরের বিধায়ক নরেশ চন্দ্র বাউড়ি সহ ১২ জনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে ।

boul | newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

আরও পড়ুনঃ অতি ভারী বৃষ্টির জেরে মধ্য, পশ্চিম ভারতে বন্যা পরিস্থিতির সম্ভাবনা, জারি সতর্কতা

এদিকে বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে স্থানীয় বাসিন্দারা স্বাস্থ্যবিধি ভাঙার বিরুদ্ধে শান্তিনিকেতন থানায় লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন। রবিবার সকালে ৫০০ জন বিজেপি সমর্থক নিয়ে বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী মেলার মাঠে প্রাচীর তোলার কাজে ঠিকাদারকে নিরাপত্তা দিতে স্বাস্থ্য বিধি ভঙ্গ করে এলাকায় নিয়ে আসে। এদিকে বীরভূম জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর আগামীকাল বুধবার প্রাচীর বিতর্ক নিরসন করতে সব পক্ষকে নিয়ে বোলপুর একটি বৈঠক ডেকেছেন বীরভূমের জেলা শাসক মৌমিতা গোদারা বসু।

মঙ্গলবার বিশ্বভারতীর কেন্দ্রীয় অফিসে আগামীকালের বৈঠকে তাদের ভূমিকা কি হবে সেই নিয়ে একটি বৈঠক ডেকেছেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী ৷ বৈঠকটি বেলা দুটো থেকে শুরু হবে বলে জানা যাচ্ছে বিশ্বভারতী সূত্রে। এবার প্রাচীর বিতর্কে মুখ খুললেন বিখ্যাত তরুণ দাস বাউল। তিনি বলেন ছোটবেলা থেকে পৌষ মেলার মাঠে বাউল সম্প্রদায়ের মানুষ বাউল চর্চা করে আসছেন।

আরও পড়ুনঃ বিশ্বভারতীর উপাচার্যের বিরুদ্ধে পথে নামল ক্ষিপ্ত জনতা

গুরুদেব রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর যে স্বপ্ন নিয়ে শান্তিনিকেতন তৈরি করেছিলেন সেই শান্তিনিকেতন কে জেলবন্দী করার পরিকল্পনা করছে বর্তমান উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী। মেলার মাঠ কে ঘিরে ফেলা হবে এই সিদ্ধান্ত শোনার পর বাউল ফকিররা অত্যন্ত মর্মাহত।

তরুণ দাস বাউল বিশ্বভারতী আচার্য তথা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আবেদন করেছেন, অবিলম্বে যেন বর্তমান উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী কে বিশ্বভারতী থেকে স্থানান্তরিত করে এমন কোন মানুষকে উপাচার্য পদে নিয়ে আসা হয় যিনি গুরুদেবের মাটির ভাষা বুঝবেন, যিনি প্রকৃতির ভাষা উপলব্ধি করবেন।

আরও পড়ুনঃ পুজোতে টানা ১৫ দিন ছুটি পাবেন রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা, প্রকাশিত ২০২১’র তালিকা

এই মূহুর্তে এমন উপাচার্য বিশ্বভারতীতে প্রয়োজন জিনিস গুরুদেবের স্বপ্নকে বাঁচিয়ে রাখবেন। এদিকে সোমবার বিকেলে বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর বাসভবন বাম ছাত্র সংগঠন দীর্ঘ ৫ ঘন্টা ঘেরাও করে রাখে বিভিন্ন দাবি-দাওয়া তে। পরে গভীর রাতে অবশ্য ছাত্ররা ঘেরাও তুলে নেন কোন অজানা কারণে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here