স্কুল খোলার ঘটনায় শো-কজের জবাবে নিঃশর্তে ক্ষমা চাইলেন প্রধান শিক্ষক

0
77

নিজস্ব সংবাদদাতা,পশ্চিম মেদিনীপুরঃ

সরকারি নির্দেশ উপেক্ষা করে স্কুল খুলে দিয়েছিলেন দাসপুরের হাট সরবেড়িয়া বিসি রায় হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক বৃন্দাবন ঘটক। চাপের মুখে পড়ে ভুল স্বীকার করলেন তিনি। শো-কজের জবাবে তিনি জানান, অভিভাবকদের আবেদনের ভিত্তিতেই তিনি স্কুল খুলেছিলেন। তবে এই ভুল তিনি আর করবেন না।

school | newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

আজ, বৃহস্পতিবার থেকেই পুনরায় স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। প্রসঙ্গত, গতকাল দশম শ্রেণির ক্লাসেই কমপক্ষে ৫০ জন পড়ুয়া উপস্থিত ছিল। স্কুল খোলা নিয়ে বিতর্কের ঝড় উঠেছিল জেলা, রাজ্য থেকে দেশ সর্বত্র! নড়ে চড়ে বসে প্রশাসন। রাত্রেই শো- কজ করা হয় স্কুলের প্রধান শিক্ষক বৃন্দাবন ঘটক কে। সেইসঙ্গে স্কুল বন্ধ রাখার কথা বলা হয়। সেই নির্দেশ স্কুলের হোয়াটস অ্যাপ গ্রুপে ছাত্ৰ-ছাত্রীদের জানিয়ে দেওয়া হয়। সেইমতো আজ আর স্কুল খোলেনি।

আরও পড়ুনঃ রাজ্যে বেকারত্বের হার কমেছে ৪০ শতাংশঃ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

এই ঘটনা নিয়ে প্রধান শিক্ষক বৃন্দাবন বাবু অবশ্য ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন বলে জানা গেছে। তিনি বলেন, “স্কুল পরিচালন কমিটির সঙ্গে আলোচনা করে ছাত্ৰ- ছাত্রীদের কথা ভেবেই স্বাস্থ্য বিধি মেনে দশম শ্রেণীর পঠন পাঠন শুরু করা হয়েছিল।” বিতর্কিত এই বিষয় নিয়ে তাঁর ৩১ বছরের শিক্ষকতার জীবনের শেষ পর্যায়ে এসে এভাবে যে তাঁকে হেনস্থা হতে হবে, তা হয়তো তিনি ভাবতেও পারেননি ৷

আসলে, তিনি হয়তো চাননি মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের পড়াশোনার আর ক্ষতি হোক ৷ অন্যদিকে, স্কুল পরিচালন কমিটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, স্কুল খোলা নয়, কোচিং এর মতো করে ক্লাস করা হয়েছে। অভিভাবকদের অনুরোধেই তা করা হয়েছিল। প্রশাসনের নির্দেশ পাওয়ার পরই তা বন্ধও করে দেওয়া হয়েছে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here