মৌমাছির গুন গুনানি দিয়ে হাতি বাঁচাবে রেল

0
98

নিজস্ব সংবাদদাতা,আলিপুরদুয়ার: গত কয়েক বছরে রেল লাইন পার হতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কায় বন্যপ্রাণী বিশেষ করে হাতির মৃত্যু আকছার ঘটেছে ডুয়ার্সের রেলপথজুড়ে । বন্যপ্রাণীদের এমন অকাল মৃত্যু ঠেকাতে উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেলের আধিকারিকরা প্রশাসনিক বৈঠক করে ইতিপূর্বে এক্সপ্রেস ট্রেনের গতি কমানো থেকে শুরু করে বেশকিছু প্রয়োজনীয় পদক্ষেপও নিয়েছেন । অভিযোগ, তাতেও রেল লাইনে কাটা পড়ে হাতির মৃত্যু পুরোপুরি রোধ করা যায়নি । অতীতে ডুয়ার্সের জঙ্গল পথে ট্রেনের ধাক্কায় পরের পর হাতির মৃত্যু অন্তত এমনটাই জানান দিচ্ছিল বলেই অভিমত ওয়াকিবহাল মহলের । তাই এবারে রেলপথে কাটা পড়ে বুন হাতির অকাল মৃত্যু ঠেকাতে অভিনব পদ্ধতি অবলম্বন করতে চলেছে রেল দপ্তর ।

রেল পথ থেকে বুন হাতিরর দলকে তাড়াতে এবার মৌমাছির ডাক বা গুঞ্জনকেই হাতিয়ার করতে চলেছেন রেলের কর্তারা ।আধুনিক প্রযুক্তির সাহায্যে মৌমাছির গুঞ্জন বাজিয়ে ট্রেন চলাচলের সময় রেল লাইন পারাপারে বিরত রাখা হবে হাতিদের । আগামী এক মাসের মধ্যে রেলপথের ওপর দিয়ে হাতিদের যাতায়াতের করিডোর চিহ্নিত করে এমন ৩/৪ টি জায়গায় ওই বিশেষ ব্যবস্থা গড়ে তোলা হবে । অসমের গোয়ালপাড়া ডিভিশনে ৩/৪ টি পয়েন্টে এমন মৌমাছির গুনগুন আওয়াজ বাজিয়ে প্রাথমিকভাবে সফলতা মিলেছে । তাই এবারে উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেলের আলিপুরদুয়ার ডিভিশনেও এই পদ্ধতি গ্রহন করা হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট ডিভিশনের ডিআরএম চন্দ্রবীর রমন । তিনি  জানান, ডুয়ার্সের ব্রডগেজ লাইনে হাতিদের করিডোর এলাকায় রেল লাইনের ধারে প্রযুক্তি ব্যবহার করে বিশেষ যন্ত্রের মাধ্যমে মৌমাছির গুনগুন শব্দ বাজানো হবে ।তাতে হাতির দল পালিয়ে যাবে ।

উল্লেখ্য, গত কয়েক বছরে এই রুটে ৬২ টি বুনো হাতি মারা গেছে । ডিআরএম চন্দ্রবীর রমন বলেছেন, মৌমাছির ডাক শুনলে হাতিরা ভয় পায় । আর এই কৌশলকেই কাজে লাগিয়ে খুব সহজে হাতির মৃত্যু প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে বলে তিনি মনে করেন । এব্যাপারে তিনি আরও বলেছেন, ২০১৫ সালে ডুয়ার্সের এই রুটে ট্রেনের ধাক্কায় হাতি মারা গিয়েছিল বটে । কিন্তু গত দু বছরে সতর্কতার কারণে হাতির মৃত্যু ঘটেনি । রেল লাইনে হাতি আসছে ঠিকই কিন্তু রেলকর্মীরা সেই খবর সঠিক সময়ে পৌচ্ছে দিচ্ছে । ফলে আগাম সতর্ক হয়ে যাচ্ছেন ট্রেনের চালকরা । তবে অনেক সময়ই রেল লাইনে দীর্ঘ সময় ধরে হাতির দল দাঁড়িয়ে থাকায় ব্যহত হচ্ছে ট্রেন চলাচল । জঙ্গলের মধ্যে কর্তব্যরত গার্ড এবং গেট ম্যানদের এজন্য চরম হয়রানির মুখে পড়তে হয় । অনেক সময় হাতির দলকে তাড়ানো তাদের দুএকজনের পক্ষে আদৌ সম্ভব হয়ে ওঠে না ।ডিআরএম জানান, তাই ট্রন চলাচলের সময় হাতির দলকে রেলপথ থেকে নিরাপদ দূরত্বে রাখতে জরুরী ভিত্তিতে সাউন্ড সিষ্টেম সক্রিয় করা হবে । এ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ এবং কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে চলেছে রেল দপ্তর।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here