বিজয়বর্গীয় অনুগামীর প্রতিবাদের দায় অস্বীকার বিজেপির

0
40

নিজস্ব সংবাদদাতা, ওয়েব ডেস্কঃ

বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কয়েক’শ পোস্টার সাঁটা রয়েছে রাস্তায় আর তার উপর দিয়েই চলছে গাড়ি, হাঁটছেন মানুষজন। ঘটনা মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরের পাটানিপুরা স্কোয়ারের। এই ছবি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

public | newsfront.co

গত বৃহস্পতিবার পশ্চিমবঙ্গের ডায়মন্ড হারবার যাওয়ার পথে শিয়াকোলে হামলার মুখে পড়েন বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। শোনা যায় জখমও হন তিনি। বিজেপির অভিযোগের তির তৃণমূলের দিকে। ঘটনার প্রতিবাদ হিসাবেই বিজয়বর্গীয় অনুগামীদের এমন পদক্ষেপ।

আরও পড়ুনঃ রাজীবের পর এবার ‘বেসুরো’ জিতেন্দ্রকে মঙ্গলবার তলব করল তৃণমূল

পাটানিপুরার স্থানীয় বাসিন্দা রাজেশ বিদকার এই ঘটনার দায়ও স্বীকার করেছেন। তাঁর বক্তব্য, একজন বিজেপি কর্মী হিসাবে নয়, বিজয়বর্গীয় অনুগামী হিসাবেই এই কাজ করেছেন তিনি। বিদকারের মন্তব্য, বাংলায় দিন গুনছে মমতা সরকার। কৈলাসজি বাংলায় তাঁর প্রাণহানির আশঙ্কা করছেন। সেই কারণে তাঁর কনভয়ে হামলাও চালানো হয়। গণতান্ত্রিক পথে কেন বাংলায় রাজনীতি করা যাবে না?

আরও পড়ুনঃ ১৭ ডিসেম্বর মোদী-হাসিনার ভার্চুয়াল বৈঠক

পোস্টার লাগানোর প্রায় ঘন্টাখানেকের মধ্যেই সেগুলো তুলে নেন রাজেশ ও তাঁর বন্ধু। কৈলাস বিজয়বর্গীয়র এই অনুগামীর যুক্তি, পোস্টার বেশিক্ষণ রেখে তিনি ইন্দোরের সৌন্দর্যহানি করতে চাননি। যদিও বিজেপি নেতৃত্ব এই ঘটনার দায় এড়িয়ে গিয়েছে। ইন্দোর শহরের বিজেপি সভাপতি গৌরভ রণদীভে বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পোস্টার কাণ্ড তাঁর জানা নেই। একই সঙ্গে তিনি এও বলেন যে, দলের কোনো কর্মী এই কাজ করেনি।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here