চীনে নিষিদ্ধ বিবিসির সম্প্রচার

0
59

নিজস্ব সংবাদদাতা, ওয়েব ডেস্কঃ

সম্প্রচার সংক্রান্ত বিধিনিষেধ ‘গুরুতর লঙ্ঘনের’ অভিযোগে চীনে বিবিসির (ব্রিটিশ ব্রডকাস্টিং করপোরেশন) টেলিভিশন ও রেডিও সম্প্রচার নিষিদ্ধ করা হলো। বৃহস্পতিবার এমনই নির্দেশ জারি করে চীনের চলচ্চিত্র, টিভি ও রেডিও প্রশাসন।

bbc news | newsfront.co

উইঘুর সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতন এবং করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রসঙ্গে চীন সরকারের লাগাতার সমালোচনা করেছে বিবিসি। সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা জারির আগে থেকেই চীনে বিবিসির সম্প্রচার খুবই সীমাবদ্ধ ছিল। শুধুমাত্র আন্তর্জাতিক হোটেল এবং কিছু কূটনৈতিক এলাকায় বিবিসি সম্প্রচারিত হতো। অর্থাৎ চীনের সাধারণ মানুষ বিবিসির অনুষ্ঠান দেখতে পেতেন না।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ অফকমের দাবি, গত বছর ব্রিটিশ নাগরিক পিটার হামফ্রের ‘বলপূর্বক স্বীকারোক্তি’ প্রচার করে ব্রিটিশ সম্প্রচারনীতি ভঙ্গ করেছে সিজিটিএন। সে কারণে ২০২১, ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম দিকে চীনা গ্লোবাল টেলিভিশন নেটওয়ার্কের (সিজিটিএন) লাইসেন্স বাতিল করেছে ইউকে। এই ঘটনার এক সপ্তাহের মাথায় অন্তত এক বছরের জন্য বিবিসির সম্প্রচারে পুরোপুরি নিষেধাজ্ঞা জারি করল চীন।

আরও পড়ুনঃ জীবাশ্ম জ্বালানি সৃষ্ট দূষণ অদৃশ্য ঘাতক, গবেষণা রিপোর্টে নয়া তথ্য

তাদের বক্তব্য, চীনের বিষয়ে বিবিসি ওয়ার্ল্ড নিউজের প্রতিবেদনগুলি সম্প্রচার সংক্রান্ত বিধিনিষেধের ‘গুরুতর লঙ্ঘন’। চীন সরকারের বক্তব্য, সংবাদ সত্য ও নিরপেক্ষ হওয়া উচিত নিশ্চয় তবে তা যেন চীনের জাতীয় স্বার্থের জন্য ক্ষতিকারক না হয়।

অন্যদিকে, বিবিসি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা চীনের এই সিদ্ধান্তে ‘হতাশ’। একটি বিবৃতি দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, “চীন কর্তৃপক্ষ এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ায় আমরা হতাশ। বিবিসি বিশ্বের সবচেয়ে বিশ্বস্ত আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম এবং সারা বিশ্ব থেকে ন্যায্য ও নিরপেক্ষভাবে খবর সংগ্রহ করে।”

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here