কলকাতায় বজ্রাঘাতে মৃত ৪, আহত ১৯

0
58

নিজস্ব সংবাদদাতা,কলকাতাঃ

শহর কলকাতায় বজ্রপাতে মৃত্যু। ভিক্টোরিয়ার সামনে বাজ পড়ে মৃত্যু হল একজনের। মৃতের নাম সুবীর পাল(৩৫)। জানা গেছে, মৃত সুবীর বাবু দমদমের বাসিন্দা মেয়ে এবং স্ত্রীকে নিয়ে ভিক্টোরিয়ায় ঘুরতে এসেছিলেন। সেখানেই বজ্রাঘাতে মৃত্যু হয় তাঁর।

lightning | newsfront.co20190816_175548
ছবিঃ প্রতীকী

আহত হয় আরও ১৭ জন। এদের চিকিৎসার জন্য এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাজ পড়ে আহত হন রিজেন্টপার্কের আরও এক জন। অন্যদিকে বজ্রপাতের জেরে একই পরিবারে মৃত্যু হয় তিন জনের। আহত হন আরও এক জন। চাষের কাজের জন্য মাঠে গিয়েছিলেন। সেই সময় বাজ পড়ে।

মৌসুমি অক্ষরেখা সক্রিয় থাকায় বজ্রগর্ভ মেঘের সঞ্চার হয়েছে যার ফলে ভাসছে শহর কলকাতা। শুক্রবার দুপুরে কালো মেঘে ছেয়ে যায় চারিদিক। সন্ধেবেলার মতো অন্ধকারে ছেয়ে যায় শহরের আকাশ। সেই সঙ্গে চলতে থাকে বর্জবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টিপাত।
শ্রাবণের শেষে ঝমঝমিয়ে বৃষ্টি নামল কলকাতা-সহ গাঙ্গেয় দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে। আগামী ৪৮ ঘণ্টা ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশ লাগোয়া এলাকায় একটি ঘূর্ণাবর্ত অবস্থান করছে। তার জেরেই উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি চলবে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, ওই ঘূর্ণাবর্তের প্রভাবে কলকাতা, হাওড়া, দুই ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর এবং মুর্শিদাবাদে ভারী বৃষ্টি হবে। কোথাও কোথাও ৭ থেকে ১১ সেন্টিমিটারের বেশিও বৃষ্টি হতে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে। এই সময় মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতরের অধিকর্তা গণেশকুমার দাস বলেন, “ঘূর্ণাবর্তের কারণে আগামী ৪৮ ঘণ্টা ভারী বৃষ্টি হবে। তবে নিম্নচাপ দানা বাঁধার সম্ভাবনা কম। এই সময় কলকাতা-সহ উপকূলের জেলাগুলিতে ভালই বৃষ্টি হবে।”

আরও পড়ুনঃ পঞ্চায়েত সদস্যার স্বামীকে মারধোরের অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

শুক্রবার সকাল থেকে আকাশ মেঘলা ছিল। আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তিও মালুম হয়েছে। ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা ভেবে কলকাতা পুরসভার কর্মীরা পরিস্থিতির উপর নজর রেখেছেন। ভারী বৃষ্টির কারণে বিভিন্ন রাস্তায় জল জমে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। পাম্পিং স্টেশনগুলি সচল রাখার হচ্ছে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485