ছুটির কারনে বন্ধ হওয়া মিডডে মিল দেওয়ার দাবী

0
45

তপন চক্রবর্তী,উত্তর দিনাজপুরঃ

কথায় বলে কারো পৌষ মাস কারো সর্বনাশ।রাজ্য সরকার কোন কারনে একটানা দুই মাস বিদ্যালয়গুলো বন্ধ করে দিয়ে পড়াশোনার যেমন ক্ষতি একদিকে করেছে ,তেমনি ভাবে একটানা দুই মাস মিডডে মিলের খাবার না পেয়ে হতদরিদ্র পড়ুয়াদের যে চরম সমস্যার মধ্যে ফেলে দিয়েছে এ ব্যাপারে কোন দ্বিমত নেই।যদিও অন্যদিকে তেলে মাথায় তেল যথারীতি শিক্ষা দপ্তর যে দিয়েছে সে ব্যাপারে সাধারণ মানুষের সমালোচনার অন্ত নেই।তেলা মাথায় তেল দিয়েছে মানে এক নাগাড়ে দুই মাস বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর বিদ্যালয়ে যাওয়া বেমালুম বন্ধ করে দিয়ে টানা দুই মাস বসে বসে বেতন দেবে সরকার এর চাইতে আর ভালো সরকার কাকে বলে?

Demand of mid day meal in leave days
নিজস্ব চিত্র

সরকার যদি শিক্ষকদের বিদ্যালয়ে না গিয়েও বেতন দিতে পারে তাহলে কেন এই দুই মাসের মিড-ডে মিলের চাল প্রতিটি বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীদের জন্য করায় গন্ডায় বুঝিয়ে দেবেন না?প্রশ্ন উঠেছে এইখানেই।হতদরিদ্র ছাত্র ছাত্রীরা কি অন্যায় করেছে যে তাদের ন্যায্য পাওনা বুঝিয়ে দেওয়া হবেনা?

উত্তর দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন চায়ের দোকান থেকে আরম্ভ করে হাটে বাজারে সর্বত্রই কান পাতলা শোনা যায় একই আলোচনা।এ রাজ্যে এই ধরনের ঘটনা পূর্বে কোনদিনও ঘটেনি।শিক্ষা দপ্তর কি ইচ্ছা করলেই যখন তখন কোন কারন ছাড়াই এ ভাবে একটানা দুইমাস বিদ্যালয়ের পড়াশোনা লাঠে তুলে দিতে পারে?এই রাজ্যে নিশ্চয় এবার নুতন গরম পড়েনি,এই রাজ্যে কি এবারই রমজান মাস নুতন শুরু হয়েছে?কোনটাই নয় নিশ্চয়।

তাই সর্বত্রই রাজ্যের মা-মাটি-মানুষের সরকারের শিক্ষা দপ্তরের খাম-খেয়ালী পনা কোন ভাবেই মেনে নিতে পারছেনা বলে অধিকাংশ মানুষই ক্ষোভ প্রকাশ করছে প্ৰতি মুহূর্তেই।

আরও পড়ুনঃ নেই ডাইনিং সেড,মিড-ডে মিল খেতে বসতে হয় বারান্দায়

শুধুমাত্র উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ ব্লক ও পৌরসভা মিলে ৩৩১টি বিদ্যালয় আছে যার মধ্যে কালিয়াগঞ্জ ব্লকে ২৯০টি বিদ্যলয় এবং ১৭টি পৌর ওয়ার্ডের মধ্যে ৪১টি অঙ্গনওয়ারী বিদ্যালয় আছে সব মিলে কয়েক হাজার দরিদ্র ঘরের পড়ুয়ারা টানা দুইমাস বিদ্যালয়ের সরকারি মিডডে মিল থেকে বঞ্চিত হচ্ছে যা এক কথায় তানা শাহী সিদ্ধান্ত বলা যায়।শিক্ষা দপ্তরের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ অধিকাংশ শিক্ষক সংগঠন করলেও রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর সেসবের কোন গুরুত্ব দেয়নি বলেই জানা যায়। তবে নির্বাচনী সংক্রান্ত বিধি নিষেধ কয়েকদিনের মধ্যে উঠে গেলে বিদ্যালয় বন্ধের সাথে সাথে বিদ্যালয় পড়ুয়াদের মিডডে মিল নিয়ে ব্যাপক প্রতিবাদ আন্দোলনে নামবে বলে বেশকিছু রাজনৈতিক দলের নেতৃত্বদের কাছ থেকে জানা যায়।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485