শালবনিতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে দাঁতাল হাতির দল, ফসলের ক্ষতির আশঙ্কা

0
7

নিজস্ব সংবাদদাতা, পশ্চিম মেদিনীপুরঃ

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার শালবনি, গুড়গুড়িপাল, গড়বেতা, গোয়ালতোড়, চন্দ্রকোনা রোড বিট হাউস পুলিশের এলাকায় দাঁতাল হাতির দল দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। প্রতিদিন বিভিন্ন এলাকার মাঠে গিয়ে হাতির দল কখনও পাকা ধান চাষের যেমন ক্ষতি করছে, তেমনি সদ্য লাগানো কফি গাছের চাষ নষ্ট করে দিচ্ছে।

elephant | newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

যার ফলে চিন্তায় পড়েছেন ওই এলাকার বাসিন্দারা। শনিবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার শালবনি থানা এলাকার কুড়াজুড়ি গ্রামে প্রায় ৩৫ টি দাঁতাল হাতির দল দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। হাতির দলে কয়েকটি বাচ্চা হাতিও রয়েছে। যার ফলে মাঠের পাকা ধান মাঠেই নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা করছেন এলাকার বাসিন্দারা। শুধু মাঠে নয় হাতির দল খাবারের সন্ধানে লোকালয়ে ঢুকে পড়ছে। যার ফলে ঘরবাড়ি ভাংচুরের ঘটনা ঘটছে। যেভাবে প্রতিদিন হাতির দল এলাকায় ঢুকে তাণ্ডব চালাচ্ছে তাতে প্রচুর ক্ষতির আশঙ্কা করছেন এলাকার বাসিন্দারা।

আরও পড়ুনঃ কাজের দাবিতে মেদিনীপুর শহরে যুব কংগ্রেসের মিছিল

শালবনির বিভিন্ন এলাকায় প্রতিদিন বিভিন্ন দলে ভাগ হয়ে হাতি গুলি দাপিয়ে বেড়াচ্ছে শালবনি থানার পাশাপাশি গুরগুড়িপাল থানার এনায়েতপুর,পলাশিয়া, মনিদহ এলাকায়। এরই পাশাপাশি চন্দ্রকোনা রোড বিট হাউস পুলিশের অধীন নয়াবসত,মহারাজপুর এলাকায় হাতির দল প্রচুর ফসলের ক্ষতি করেছে। তেমনি গরবেতা ও গোয়ালতোড় থানা এলাকায় প্রচুর ক্ষতি করছে হাতির দল বলে গ্রামবাসীরা জানান।

আরও পড়ুনঃ গঙ্গায় স্নান করতে নেমে সামশেরগঞ্জে নিখোঁজ দুই শিশু

বিষয়টি গ্রামবাসীরা বনদফতরকে জানিয়েছে। বনদফতরের পক্ষ থেকে গ্রামবাসীদের সতর্ক থাকার আবেদন করা হয়েছে। সেই সঙ্গে বনদফতরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে হাতির যাত্রাপথে কেউ যেন বাধা না দেয়। হাতি গুলির গতিবিধির উপর বন দফতরের পক্ষ থেকে নজর রাখা হয়েছে। হাতির হামলায় যাদের ফসল ও ঘরবাড়ির ক্ষতি হয়েছে তাদের বন দফতররে পক্ষ থেকে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।

তবে গ্রামবাসীরা বলেন,বন দফতরের পক্ষ থেকে ক্ষতিপূরণ কবে দেওয়া হবে তা জানানো হয়নি। আর যে পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তার একভাগও ক্ষতিপূরণ পাওয়া যাবেনা। তাই ওই এলাকার বাসিন্দারা হাতির হামলায় ফসলের ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছেন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485