করোনায় মৃত ব্যক্তিকে স্বচ্ছ আবরণে এবার দেখতে পাবে পরিবার, নির্দেশ নবান্নের

0
28

শুভম বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতাঃ

করোনায় মৃত্যু হলে এবার তাঁকে শেষ দেখা দেখতে পারবে পরিবার। তবে দেহ মোড়া থাকবে স্বচ্ছ প্লাস্টিকে। শুক্রবার দুপুরে নবান্নের তরফে এমনটাই জানানো হয়েছে। খুব তাড়াতাড়ি এ বিষয়ে সরকারি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হবে।

Nabanna | newsfront.co
প্রতীকী চিত্র

প্রসঙ্গত, শুক্রবার সকালেই করোনা আক্রান্তদের মৃতদেহ সৎকারের পদ্ধতি নিয়ে প্রশ্ন তুলে এবং শেষকৃত্যের আবেদন জানিয়ে হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়েছিল। এতদিন পর্যন্ত কোনও করোনা রোগীর মৃত্যু হলে স্বাস্থ্য দফতরের নির্দিষ্ট গাইডলাইন মেনে হাসপাতাল থেকে আলাদা গাড়িতে করে সরাসরি ধাপার মাঠে নিয়ে গিয়ে সৎকার করা হচ্ছিল।

সংক্রমণ মুক্ত ব্যাগে এমনভাবে ভরা হত, তাতে বাইরে থেকে কিছুই দেখা যেত না। করোনাভাইরাস সংক্রমণ এদেশে বাড়ার সময়েই মৃতদেহ সৎকার সংক্রান্ত বিশেষ গাইডলাইন প্রকাশ করেছিল আইসিএমআর। সারা দেশেই সেই নিয়ম মেনে সৎকার শুরু হয়। পরিবারের লোককে মৃত্যুসংবাদ দিলেও, তাঁদের কারও শেষ দেখা করার অনুমতি ছিল না।

আরও পড়ুনঃ করোনা আবহে ৬০-৮০% রাস্তায় যাতায়াত বাড়ল বাইক স্কুটির, বেড়েছে বিক্রি

কিন্তু নতুন নিয়মে এবার থেকে দেহ মোড়া হবে স্বচ্ছ প্লাস্টিকে, যাতে পরিবারের সদস্যরা দেখতে পান সদ্য মৃত মানুষটিকে। তার পরেই নিয়ম মেনে সৎকার হবে। নতুন নিয়ম অনুযায়ী, সৎকারের আগে কোনও ধর্মীয় মন্ত্রপাঠ বা রীতি পালন করতে চাইলে তা দেহ না ছুঁয়ে করা যেতে পারে। দেহকে স্নান করানো, জড়িয়ে ধরা, চুমু খাওয়া চলবে না। দেহ ঘিরে কোনও জমায়েতও করা যাবে না। সৎকারের পরে ছাই বা মাটি সংগ্রহ করা যেতে পারে ধর্মীয় রীতিপালনের উদ্দেশে, তাতে কোনও ঝুঁকি থাকবে না।

নবান্ন সূত্রের খবর, কয়েক দিন ধরেই রাজ্য সরকারের কাছে বিভিন্ন মৃতের পরিবারের সদস্যদের তরফে একাধিক আবেদন আসছিল। তাই বিষয়টি মানবিক দৃষ্টিভঙ্গিতে বিবেচনা করা হয়েছে। কী করে কী করা যেতে পারে তা নিয়ে বহু আলোচনা হয়েছে, ডাক্তারদের পরামর্শ নেওয়া হয়েছে। শেষ পর্যন্ত চিকিৎসকরাই উপায় বাতলেছেন। সঠিক ভাবে স্যানিটাইজ় করার পরে দেহটি স্বচ্ছ আবরণে মুড়ে রাখতে, যাতে তাঁকে দেখতে পান পরিবারের মানুষ। এই পদ্ধতিতে শেষ দেখাতেও সংক্রমণের ভয়ও থাকবে না।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485