বন্যার করাল গ্রাসে একই পরিবারের চারজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হরিশচন্দ্র পুরে

0
169

উমার ফারুক,নিউজ ফ্রন্ট,হরিশচন্দ্রপুর:

বন্যায় প্লাবিত সমগ্র উত্তর মালদা।মানুষ বন্যার জল থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য যে যার মতো ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন।হরিশচন্দ্রপুর থানার শিরিষবোনা গ্রামের একটি পরিবার বন্যার জল থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য উচু করে বাঁশের টঙ তৈরি করেন।সেই টঙ এ রাতে ঘুমিয়ে ছিলেন মহম্মদ সহীমুদ্দিন(৬২)তার স্ত্রী আমিনা বিবি(৪৫),ফাইজুদ্দিন(৪০),পাচঁ বছরের শিশু মহম্মদ হাসানুজ্জামান।গত ১৯শে আগস্ট রাত্রি ১১টার সময় হঠাৎ করে একটি আম গাছ ভেঙে পড়ে তাদের উপর।গ্রামবাসী দ্রুত নৌকার ব্যবস্থা করে আহতদের ভালুকা হাসপাতালে নিয়ে আসেন।আমিনা বিবি ও শিশু হাসানুজ্জামানের অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের মালদা মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তরিত করা হয়।আমিনা বিবি অবস্থার আরও অবনতি হওয়ায় তাকে কলকাতা পিজি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সংকটজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন আমিনা বিবি।

এই আহত পরিবার কে সাহায্যের ব্যাপারে প্রশাসনিক উদাসীনতার অভিযোগ এনেছেন এলাকার বাসিন্দা অধ্যাপক ড.মহম্মদ ইসমাইল।তিনি বলেন-আহত পরিবারের দ্রুত চিকিৎসার জন্য বিডিও সাহেব কে ফোন করা হলে তিনি ফোন ধরেন নি।জেলা শাসক ও এন.ডি. আর.এফ টিমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়।জেলা শাসক চেস্টা করা হয় । কিন্তু রাতে ১০কিমি পথ গাইড ছাড়া বন্যা কবলিত জায়গায় যাওয়া সম্ভব নয় বলে ছিলনা প্রশাসন দায়িত্ব এড়িয়ে যায়।এই পরিস্থিতি তে গ্রামবাসীর উদ্যোগে আহতদের ভালুকা হাসপাতালে পৌঁছনো হয়।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here