সমুদ্রে বেআইনী কালো ট্রলার উদ্ধার

0
44

শুভেন্দু হাওলাদার,পূর্ব মেদিনীপুরঃ

সমুদ্রে উদ্দেশ্যহীন ভাবে ঘোরাফেরা করতে থাকা এক কালো ট্রলারের দেখা মিললো।যা নিয়ে মৎস্যজীবিদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়ায়।পূর্ব মেদিনীপুরের জুনপুট কোষ্টাল থানার পুলিশ বোট নিয়ে তড়িঘড়ি বেরিয়ে পড়ে ট্রলারটির সন্ধানে।পেটুয়া বাঁকিপুটের কাছে পুলিশ দেখতে পায় ট্রলারটিকে।প্রথমে সিগন্যাল দিলেও কোন সাড়াশব্দ করেনি ট্রলারটি।পুলিশ বন্ধুক তাক করে হ্যান্ডসআপ বললে ও দেখা মেলেনি কারোরই।সরকারী অরেঞ্জ কালারকে অবজ্ঞা করে এই ট্রলারের রং যখন কুচকুচে কালো,তা অবশ্যই কোন জলদস্যু অথবা দুষ্কৃতিদের ট্রলার যে হতে পারে পুলিশের মধ্যে সেই ধারনা স্পষ্ট হয়ে ওঠে।তাই প্রথমে সরাসরি ট্রলারটির পাশে না ভিড়ে রীতিমতো পুলিশি কায়দায় ট্রলারের কাছে গিয়ে আটকায় ট্রলারটিকে।জনমানসহীন ট্রলারটি একটি চড়াতে আটকে রয়েছে।পুলিশের প্রথমিক অনুমান ঝড়ের কবলে পড়ে জলদস্যু অথবা দুষ্কৃতিদের এই বেআইনি রং এর ট্রলারটি বিকল হয়ে যায়।তারপর অন্য তাদের ট্রলারে দুষ্কৃতীরা এই ট্রলারটি ছেড়ে পালিয়ে যায়।যার ফলে ভাসতে ভাসতে চড়ার দিকে এসে ঠেকেছে ট্রলারটি।তবে বাংলাদেশী ট্রলার কিনা ও পুলিস খতিয়ে দেখছে।ট্রলারের কোন রেজিস্ট্রেশন নম্বর নেই।পাওয়া গেছে বেশকিছু বড় ফাঁসের জাল ও কিছু বড়সাইজের ইলিশ মাছ,এরা মৎসজীবিদের আক্রমণ করে বড়মাপের দামী মাছ ছিনতাইকারীও হতে পারে বলেও অনুমান পুলিশের।সম্প্রতি একটি তেল পাচারকারীদের কালো ট্রলারও ধরেছিল জুনপুট কোষ্টাল থানার পুলিশ।একে একে কালো বেআইনি ট্রলারের হদিশ মিলতে থাকায় সমুদ্রে জলদস্যু অথবা দুষ্কৃতিদের তাণ্ডব যে বাড়ছে তা নিয়ে পুলিশের কপালে যথেষ্ট ভাঁজ ফেলতে শুরু করেছে।

আরও পড়ুন: আগুন জ্বালিয়ে প্রতিবাদ ডি ওয়াই এফ আই এর

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485