বিশ্ব গণতন্ত্র সূচকে অবনতি ভারতের, দশ ধাপ পিছিয়ে ৫১ নম্বরে দাঁড়িয়ে দেশ

0
34

নিউজফ্রন্ট, ওয়েবডেস্কঃ

বিশ্ব গণতন্ত্র সূচকে ১০ ধাপ নেমে এল ভারত। এই পতনের জন্য ভারতের নাগরিক অধিকার খর্ব হওয়াকেই দায়ী করছে ব্রিটিশ গবেষণা সংস্থা ইকনমিস্ট ইনটেলিজেন্স ইউনিট (ইআইইউ)।

india falls to 51st position world democracy index 2019 | newsfront.co
চিত্র সৌজন্যঃ হাফিংটন পোস্ট

সুত্র মারফৎ জানা যায়, ২০১৯ সালের তালিকায়, ১৬৭টি স্বাধীন দেশের মধ্যে ৫১তম স্থানে জায়গা হয়েছে ভারতের। কিন্তু ২০১৮তে ভারতের স্থান ১০ ধাপ এগিয়ে ছিল ৪১ নম্বরে।

২০০৬ সাল থেকে গণতন্ত্র সূচক প্রকাশ করে আসছে ইআইইউ। এই সূচক প্রকাশনার পিছনের গুরুত্বপূর্ণ বিচার্য বিষয়গুলি হল–

▪দেশভিত্তিক সরকারের সক্রিয়তা
▪নির্বাচন প্রক্রিয়ার পরিচ্ছন্নতা
▪নাগরিক অধিকারের সুরক্ষতা
▪রাজনৈতিক সংস্কৃতির পরিমণ্ডল
▪দেশবাসীর সাথে রাজনীতির সাথে একাত্মতা

২০১৯-এর হিসাবে এতে ১০-এর মধ্যে ৬.৯ পেয়েছে ভারত। ২০১৭ এবং ২০১৮ সালে যা ছিল যথাক্রমে ৭.২৩ ও ৭.৮১। ২০১৪ তে ১০-এ ৭.৯১ পেয়েছিল ভারত।

আরও পড়ুনঃ প্রয়াত লোকসংস্কৃতি গবেষক-লেখক-সাংবাদিক পুলকেন্দু সিংহ

ইআইইউ ভারতের সূচকে এই পতনের কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বলছে বেশ কিছু হটকারী সিদ্ধান্ত ভারতের এই পতনের জন্য দায়ী। উল্লেখ্য, জম্মু-কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতি। বলা হয়েছে, ৩৭০ ধারা বিলোপ করার আগে উপত্যকায় বিশাল বাহিনী নামায় ভারত সরকার। পাশাপাশি বিভিন্ন বিধিনিষেধ আরোপ করে, যার মধ্যে নেতাদের গৃহবন্দী, ফোন-ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ উল্লেখযোগ্য।

দেশ জুড়ে সিএএ জারিও গণতন্ত্র সূচক নেমে যাওয়ার পিছনে দায়ী। ধর্মের ভিত্তিতে এই আইন প্রণয়নের কারণে আপামর মুসলমান সমাজের পাশাপাশি বহু মানুষ স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে এই আইনের প্রতিবাদে নেমেছেন। সাম্প্রদায়িক উত্তেজনাতেও এই ঘটনা ইন্ধন জুগিয়েছে বলে মনে করছে ইআইইউ।

আরও পড়ুনঃ নাসিরকে পালটা আক্রমণ অনুপমের, টুইটারে ভিডিও পোস্ট করে ব্যক্তিগত বিষয় তুলে কটাক্ষ

ইআইইউ প্রতিটি দেশের প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে দেশগুলিকে এক একটি বিভাগের আওতায় ফেলেছে। সেগুলি হল— পূর্ণ গণতন্ত্র, ত্রুটিপূর্ণ গণতন্ত্র, মিশ্র শাসন ব্যবস্থা এবং স্বৈরাচারী শাসনব্যবস্থা। তাতে ত্রুটিপূর্ণ গণতন্ত্র বিভাগে ঠাঁই হয়েছে ভারতের।

তবে তালিকায় ভারতের চেয়ে ঢের পিছিয়ে চিন। ১০-এর মধ্যে মাত্র ২.২৬ পেয়ে ১৫৩ তম স্থানে জায়গা হয়েছে তাদের। অন্য প্রতিবেশী দেশগুলির মধ্যে পাকিস্তান রয়েছে ১০৮ নম্বরে, শ্রীলঙ্কা রয়েছে ৬৯-এ এবং বাংলাদেশ ৮০ নম্বরে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here