আফগানিস্তানের বিপক্ষে দারুণ এক জয়ে বিশ্বকাপে টিকে থাকার ক্ষীণ আশা জাগিয়ে রাখল টীম ইন্ডিয়া

0
25

শরীয়তুল্লাহ সোহন ,ওয়েব ডেস্কঃ

টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের অভিযাত্রা শুরু হয় গত ২৪ অক্টোবর—পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে। এতদিন পর ভারতের সমর্থকেরা একটু হাঁফ ছাড়তে পারলেন। সুপার টুয়েলভে যে ভারত প্রথম জয়ের মুখ দেখল! দারুণ এক কাম ব্যাকে আফগানিস্তানের বিপক্ষে গত রাতে।

brilliant balling of mohammad shami
ম্যাচে দুর্দান্ত বল শামির

 

আবুধাবিতে গত রাতে আফগানিস্তানকে ৬৬ রানে হারিয়ে সেমিফাইনালে ওঠার আশা বাঁচিয়ে রাখল বিরাট কোহলিরা। সুপার টুয়েলভে পাকিস্তান এবং নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হারের পর ভারতের সেমিফাইনালে খেলাই অনিশ্চয়তার মুখে পড়ে যায়। আফগানিস্তানকে হারিয়ে সে পথে কিছুটা হলেও ঘুরে দাঁড়াল বিরাট কোহলির দল।

এ জয়ে ৩ ম্যাচে ২ পয়েন্ট নিয়ে নিজেদের গ্রুপে পয়েন্ট তালিকার চারে উঠে এল ভারত। বাকি দুই ম্যাচ জিততেই হবে কোহলির দলকে, এর পাশাপাশি অন্য ম্যাচের ফলেও তাকিয়ে থাকতে হবে। ৪ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে একই গ্রুপে পয়েন্ট তালিকার দুইয়ে আফগানিস্তান।

আরও পড়ুনঃ যাবতীয় জল্পনা দূরে ঠেলে কোহলিদের প্রধান কোচ হিসেবে নিযুক্ত হলেন রাহুল দ্রাবিড়

গত রাতের ম্যাচে টসে হেরে আগে ব্যাট করে ২ উইকেটে ২১০ রান তোলে ভারত। তাড়া করতে নেমে পাওয়ার প্লের ৬ ওভারে ২ উইকেটে ৪৭ রান তোলে আফগানিস্তান।

দুই মারকুটে ওপেনার হজরতউল্লাহ জাজাই এবং মোহাম্মদ শাহজাদ আউট হয়ে যাওয়ায় দ্রুত রান তোলার পথ থেকে ছিটকে পড়ে মোহাম্মদ নবীর দল। ১৫ বলে ১৩ রান করে যশপ্রীত বুমরাকে উইকেট দেন জাজাই। ০ রানে মোহাম্মদ শামির বলে ক্যাচ তুলে আউট হন শাহজাদ।

আরও পড়ুনঃ সহকারী কোচ হিসাবে আবুধাবি দলে যোগ দিলেন সারাহ টেলর

উঠতি তরুণ প্রতিশ্রুতিবান ব্যাটসম্যান রহমানউল্লাহ গুরবাজ তখনো উইকেট থাকায় লড়াইয়ের আশা ছিল আফগানিস্তানের।কিন্তু সপ্তম ওভারে রবীন্দ্র জাদেজার বলে ক্যাচ তুলে আউট হন ১০ বলে ১৯ রান করা গুরবাজ। ১০ ওভারের মধ্যে গুলবদিন নঈবকেও (১৮) হারিয়ে চাপে পড়ে যায় আফগানিস্তান।

জয়ের জন্য শেষ ১০ ওভারে ১৫০ রান দরকার ছিল দলটির। ভারতের বোলারদের সামনে লক্ষ্যটা আফগানিস্তানের জন্য সামর্থ্যের বেশি হয়ে গিয়েছিল। শেষ ১০ ওভারে ৮৩ রান তুলেছে আফগানিস্তান। ৭ উইকেটে ১৪৪ রানে থেমেছে দলটির ইনিংস।

সাতে নামা করিম জান্নাত ২২ বলে ৪২ রানে অপরাজিত না থাকলে আফগানিস্তানের সংগ্রহ আরও কমত। অধিনায়ক নবীর ব্যাট থেকে এসেছে ৩২ বলে ৩৫। ৩২ রানে ৩ উইকেট নেন মোহাম্মদ শামি। ১৪ রানে ২ উইকেট নেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

টস হেরে আগে ব্যাটিং পাওয়া ভারতের শুরুটা ছিল দুর্দান্ত। ১৪.৪ ওভারে ওপেনিং জুটি ভাঙার আগে ১৪০ রান তুলেছেন রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুল। ৪৭ বলে ৭৪ রান করেন রোহিত। ৩ ছক্কা ও ৮ চারে সাজানো তাঁর এ ইনিংসে সেঞ্চুরির সুবাস ছিল। কিন্তু করিম জান্নাতের শিকার হয়ে শেষ পর্যন্ত সেঞ্চুরি পাননি রোহিত।

আরও পড়ুনঃ ভারতের চাপ বাড়িয়ে স্কটল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিফাইনালের রাস্তা সহজ করে তুলল নিউজিল্যান্ড

২ ছক্কা ও ৬ চারে ৪৮ বলে ৬৯ রান করেন রাহুল। ১৭তম ওভারে গুলবদিন নঈব তাঁকে তুলে নেওয়ার পর ভারতের আর উইকেট পড়েনি। হার্দিক পান্ডিয়া ও ঋষভ পন্ত ২১ বলে অবিচ্ছিন্ন ৬৩ রানের জুটি গড়ে ভারতকে দুইশোর্ধ্ব সংগ্রহ এনে দেন।

১৩ বলে ৩৫ রান করেন পান্ডিয়া। সমান বলে ২৭ রান করেন ঋষভ। আফগানিস্তানের হয়ে ১টি করে উইকেট নেন করিম জান্নাত ও গুলবদিন নঈব। দূর্দান্ত ইনিংসের সুবাদে ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন রোহিত শর্মা।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here