সালিশি সভায় সংঘর্ষে জখম এক অন্তঃসত্ত্বা সহ বারো জন

0
24

হরষিত সিংহ, মালদহঃ

দাম্পত্য কলহের সালিশি সভায় বিবাদের জেরে সংঘর্ষের ঘটনায় মহিলা সহ গুরুতর জখম হল উভয় পক্ষের প্রায় বারো জন। শনিবার রাতে এই ঘটনা মালদহের রতুয়া দুই নম্বর ব্লকের বাটন দুই নম্বর পঞ্চায়েতের চরকিভিটা গ্রামের। গুরুতর জখম অবস্থায় এই অন্তঃসত্বা মহিলা সহ আট জন মালদহ মেডিকেলে চিকিৎসাধীন। বাকীরা স্থানীয় গ্রামীণ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনায় এখনো থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের না হলেও মৌখিক ভাবে বিষয়টি পুলিশকে জানিয়েছে জখমদের পরিবার।

চিকিৎসাধীন দুই জখম ব্যক্তি । ছবিঃঅভিষেক দাস

পরিবার সুত্রে জানা গিয়েছে গুরুতর জখম অবস্থায় মালদহ মেডিকেলে চিকিৎসাধীন ছেলে পক্ষের আব্দুল রফিক, রবিউল শেখ, তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা মহিলা আফসরা বিবি, শেফালি বিবি ও ইনসান আলি সহ আট জন। মেয়ে পক্ষের জখম চার জন স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। জানা গিয়েছে চরকিভিটা গ্রামের বাসিন্দা ইনসান আলির সঙ্গে বিয়ে হয় সাহেবা বিবির। বিয়ের পর থেকে মাঝে মধ্যেই স্বামী স্ত্রীর সঙ্গে বিবাদ লেগে থাকত। দুই পরিবারের সদস্যরা বেশ কয়েকবার তাদের ঝামেলা মিটমাট করে। কিন্তু কোন সুরাহা হয়নি। গত শনিবার ফের দুই জনের মধ্যে বিবাদ বাধে। অভিযোগ সেই খবর শুনতে পেয়ে গৃহবধূ সাহেবা বিবির বাবার বাড়ির লোকেরা চড়াও হয় ইনসান আলির বাড়িতে। কিন্তু গ্রামবাসীদের চেষ্টায় সেই সময় তাদের বিবাদ মিটমাট হয়। এই নিয়ে শনিবার রাতে দুই পক্ষের সদস্যদের নিয়ে গ্রামে একটি সালিশি সভা বসে। সেই সালিশি সভায় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় তৃণমূল নেতারা। অভিযোগ সালিশি সভা চলাকালিন মেয়ে পক্ষের একরামূল জাহির সহ বেশ কয়েক জন ছেলে পক্ষের লোকেদের উপর হামলা চালায়। অন্তঃসত্বা মহিলা আফসারা বিবি সহ পরিবারের সকলকে মারধোড় শুরু করে।

জখম অন্তঃসত্ত্বা মহিলা।ছবিঃঅভিষেক দাস

সংঘর্ষের জেরে ছেলে পক্ষের আট জন গুরুতর জখম হয়। আক্রমণ কারিদের মধ্যেও কয়েকজন জখম হয়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় জখমদের স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়। তাদের মধ্যে ছেলে পক্ষের আট জন মালদহ মেডিকেলে চিকিৎসাধীন।

আরও পড়ুনঃ ফের বন দপ্তরের নজর এড়িয়ে হাতির তান্ডব, মৃত্যু ১

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485