রেশন ব্যবস্থাকে রাজনৈতিক খাঁচা-মুক্ত করুনঃ রাজ্যপাল

0
15

শুভম বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতাঃ

বেশ কিছুদিন চুপ থাকার পর ফের ট্যুইটারে সক্রিয় হলেন রাজ্যপাল। রাজ্য প্রশাসনের কোনও গাফিলতি নজরে এলেই ট্যুইট করতে বিন্দুমাত্র দেরি করেন না তিনি। আর প্রধানমন্ত্রী নভেম্বর পর্যন্ত রেশন ঘোষণার পালটা মুখ্যমন্ত্রী ২০২১-এর জুন পর্যন্ত রেশন ঘোষণার পরেই তিনি ট্যুইট করলেন, রেশন ব্যবস্থাকে রাজনৈতিক খাঁচা-মুক্ত করুন।

Jagdeep Dhankhar | newsfront.co
ফাইল চিত্র

প্রসঙ্গত, মাত্র তিন মাসেই দেশজুড়ে চূড়ান্ত মহামারি পরিস্থিতি তৈরি করেছে করোনা ভাইরাস। সংক্রমণ আর মৃত্যুর করাল গ্রাসে থমকে গিয়েছে মানুষের জীবন-জীবিকা। তাই এই আবহে মানুষ যাতে খেয়েপড়ে বাঁচতে পারেন, তার জন্য নভেম্বর পর্যন্ত দেশের ৮০ কোটি মানুষকে বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

স্বাভাবিক প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পরেই নিজেদের ‘গরিবের মসিহা’ হিসেবে তুলে ধরে ২০২১ বিধানসভা ভোটের আগে বঙ্গে রাজনৈতিক জমি তৈরির আশায় ছিল বঙ্গ বিজেপি। কিন্তু ১০ মিনিটে সেই আশা চুরমার করে দিয়ে নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, ২০২১ জুন পর্যন্ত রেশনে ৫ কেজি করে চাল ও আটা বিনামূল্যে দেওয়া হবে। স্বাভাবিক ভাবেই রেশন রাজনীতির পালটা টক্করে ক্ষুব্ধ বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব। যেন তাঁরই সুর ঝরে পড়ল রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধানের ট্যুইটে।

আরও পড়ুনঃ থাকলে তবে তো বিনামূল্যে রেশন দেবেন! মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ দিলীপ ঘোষের

রাজ্যপাল টুইটে লিখেছেন, ‘দেখবেন রাজ্যে রেশন যেন কাট খাওয়া না হয়।এখান কার রেশন ব্যবস্থার রাজনীতিকরণ দেখে চিন্তায় আছি। গরিব মানুষের প্রাপ্য কালোবাজারে এবং শাসকদলের কর্মীদের কাছেই চলে যায়।’

আরও পড়ুনঃ আক্রান্ত ১২, পুরীতে শুরু হল উল্টো রথযাত্রা

এই প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘দুর্নীতি’ রুখতে সচেষ্ট হতে এবং সরকারি আধিকারিকদেরও যথাযোগ্য দায়িত্ব পালনের আবেদন জানিয়েছেন রাজ্যপাল। মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে ধনখড় লেখেন, ‘রেশন ব্যবস্থাকে রাজনৈতিক খাঁচা থেকে মুক্ত করুন। মানুষের সেবায় লাগান। নিজেদের দায়িত্ব পালনে আমলারা সতর্ক থাকুন। আইন আপনাদের ছাড়বে না।’

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485