‘বিয়ে অপেক্ষা করতে পারে রোগী না’- দৃষ্টান্ত স্থাপন তরুণী চিকিৎসকের

0
425

ওয়েবডেস্ক, নিউজ ফ্রন্ট:

দেশব্যাপী করোনা সংকটের মধ্যে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন বছর ২৩ এর এক তরুণী ডাক্তার। কেরালার কান্নুরের পারিয়ারাম মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের হাউস স্টাফ শিফা এম মহম্মদ করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য পিছিয়ে দিলেন বিয়ে।

ছবি সংগৃহীত

হিন্দুস্থান টাইমস প্রকাশিত সংবাদে জানা যায়, গত ২৯ শে মার্চ তার বিয়ের দিন ঠিক ছিল। ইতিমধ্যেই দেশে বিশেষ করে কেরালায় করোনার প্রাদুর্ভাব দ্রুত বাড়তে শুরু করে। পারিয়ারাম হাসপাতালে আইসোলেশন বিভাগে ডিউটি করার সময় শুরু হয় মানসিক দ্বন্দ্ব- একদিকে পেশাগত দায়িত্ব অন্যদিকে জীবনের নতুন অধ্যায়ের শুরু। শেষ পর্যন্ত তিনি বেছে নেন প্রথমটিকেই।

তারপর বাবা-মা ও শ্বশুরবাড়ির লোকেদের জানান তার সিদ্ধান্তের কথা। প্রথম ইতস্তত করলেও, ‘বিয়ে অপেক্ষা করতে পারে, রোগী না’ তাঁর এই মানসিকতাকে সাদরে সম্মান জানায় সকলে। সমাজকর্মী বাবা ও পেশায় শিক্ষিকা মা মেয়ের এই সিদ্ধান্তে খুব খুশি। বাবা বলেন, ‘মেয়ে আমার ব্যক্তিগত চাহিদার থেকে সামাজিক দায়িত্ব ও কর্তব্যকে প্রাধান্য দিয়েছে। আমরা খুব খুশি।’

কিন্তু লাজুক মেয়ে কোনভাবেই তাঁর এই সিদ্ধান্তকে বিশাল কিছু হিসেবে মানতে চাননি।যেদিন বিয়ের দিন ছিল সেদিন পার্সোনাল প্রটেকশন ইকুইপমেন্ট পরে ডিউটি করার সময় তার বন্ধুরা তাকে ঠাট্টাচ্ছলে বলে ওঠে ‘বিয়ের পোশাকটা কিন্তু দারুন হয়েছে!’

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here