শহরজুড়ে জামতাড়া গ্যাংয়ের দৌরাত্ম্য, কলকাতা পুলিশের জালে ধরা পড়ল ১৬ জন

0
19

মোহনা বিশ্বাস, কলকাতাঃ

কয়েকদিন ধরেই শহরে টাকা লুঠ, এটিএম জালিয়াতি, প্রতারণার মতো অভিযোগ উঠছিল। এবার এই কাজের সঙ্গে জড়িত জামতাড়া গ্যাংয়ের ১৬ জনকে গ্রেফতার করল ব্যাঙ্ক প্রতারণা শাখার পুলিশ। বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজের সঙ্গে জড়িত জামতাড়া গ্যাংকে খুঁজতে গত কয়েকদিন ধরেই শহরজুড়ে তল্লাশি চালাচ্ছিল কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা অফিসাররা। এরপরই পুলিশের জালে ধরা পড়ল ওই কুখ্যাত গ্যাংয়ের ১৬ জন সদস্য।

accused
ধৃত ১৬ জন

ধৃতদের অধিকাংশই ঝাড়খণ্ডের জামতাড়া, গিরিডি ও ধানবাদের বাসিন্দা। পুলিশ সূত্রে খবর, কলকাতা ও তার আশেপাশের এলাকায় ঘাঁটি গেঁড়েছিল এরা। ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে জাল এটিএম কার্ড, মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপ। এরা কী ধরনের প্রতারণার কারবার চালাত, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

কয়েকদিন আগেই এক প্রৌঢ়ের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। ভুয়ো ফোন কলের সাহায্য টাকা লুঠ করে ওই অপরাধীরা। সত্তর বছর বয়সী চণ্ডীদাস মল্লিকের অভিযোগ, ২৩ অগাস্ট তাঁর কাছে একটি ভুয়ো ফোন কল আসে।

আরও পড়ুনঃ খাবার দিতে দেরি হওয়ায় নয়ডার হোটেল মালিককে গুলি, নাম জড়িয়েছে সুইগি-র

সেই ফোন কলেই তাঁকে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের তথ্য দিতে বাধ্য করে একজন। হুমকি দিয়ে তাঁকে বলা হয়, তিনি যদি অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত তথ্য না দেন, তাহলে এটিএম কার্ড ব্লক হয়ে যাবে। আচমকা একথা শুনে ভয়ে তথ্য বলে দেন তিনি। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই অ্যাকাউন্ট থেকে ৫১ হাজার টাকা তুলে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনার কয়েকদিন আগেই এন্টালির প্রৌঢ় ব্যবসায়ীর ২টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্ট থেকে লক্ষাধিক টাকা লোপাট হয়ে যাওয়ার অভিযোগ ওঠে।

আরও পড়ুনঃ নারদা মামলার চার্জশিটে নাম ফিরহাদ-সুব্রত-মদনের, শুভেন্দুকে গ্রেপ্তারের দাবি কুনালের

এরকমভাবেই গত কয়েকমাসে শহরের বিভিন্ন জায়গা থেকে লক্ষাধিক টাকা লুঠ হয়েছে। এরপরই সন্দেহ হয় পুলিশের। এই ঘটনাগুলির পিছনে জামতাড়া গ্যাংয়ের হাত রয়েছে বলে অনুমান করে পুলিশ। সেই কারণে অপরাধীদের খুঁজতে গত কয়েকদিন ধরে শহরজুড়ে তল্লাশি অভিযান চালায় কলকাতা পুলিশ। মাত্র দু’দিনের মধ্যেই জামতাড়া গ্যাংয়ের ১৬ জন সদস্যকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here