মহানগরের মুকুটে নয়া পালক, টিকাকরণে মেট্রো শহরগুলির মধ্যে শীর্ষস্থানে কলকাতা

0
25

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলকাতাঃ

তিলোত্তমার শীর্ষে উঠল নতুন খেতাব। সারা দেশজুড়ে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ যেভাবে আছড়ে পড়েছিল, তাতে কার্যত বেসামাল হয়ে পড়েছিল স্বাস্থ্য ব্যবস্থা। সংক্রমণ রুখতে একটাই পথ, তা হল ব্যাপকহারে টিকাকরণ, জানিয়েছিল চিকিৎসক থেকে বিশেষজ্ঞমহল। সেই টিকাকরণে মেট্রো শহরগুলির মধ্যে এগিয়ে কলকাতা।

firhad hakim | newsfront.co
ফিরহাদ হাকিম। ফাইল চিত্র

উল্লেখ্য, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে অভাব পড়েছিল অক্সিজেন থেকে শুরু করে করোনা প্রতিষেধক রেমডেসিভির, হাসপাতালের বেড, এমনকি ঘাটতি দেখা গিয়েছিল ভ্যাকসিনেও। ভ্যাকসিনের জোগান কম থাকায় প্রতি পদে সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছিল রাজ্যগুলিকে। এই নিয়ে কেন্দ্র সরকারকে একাধিকবার অভিযোগও জানায় রাজ্য। সেইসব ঘাত প্রতিঘাত পেরিয়ে করোনা টিকাকরণে প্রথম স্থান দখল করল কলকাতা।

firhad hakim facebook page | newsfront.co
চিত্র সৌজন্যেঃ ফিরহাদ হাকিমের ফেসবুক পেজ

আরও পড়ুনঃ সেরে উঠেছেন বুদ্ধদেব, আজ দুপুরে নার্সিংহোম থেকে ফিরবেন বাড়ি

উল্লেখ্য, গত সোমবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঘোষণা করেন, সকল দেশবাসীকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। এদিকে, কলকাতায় গতকাল ভ্যাকসিনের ঘাটতি দেখা দেয়, বন্ধ থাকে কোভিশিল্ডের টিকাকরণ।এরমধ্যেই ফিরহাদ হাকিম ঘোষণা করেন, আগামী ১৪ জুন থেকে আধার কার্ড নিয়ে কলকাতা পুরসভার যেকোনো হেলথ সেন্টারে গেলেই মিলবে টিকা, তার জন্য লাগবে না কোনো রেজিস্ট্রেশন। এছাড়া বড় প্রতিষ্ঠানগুলি থেকে সুপারস্পেডারদের টিকা দেওয়া হবে। সাথে চলবে ভ্যাকসিন অন হুইলস এবং ড্রাইভ ইন ভ্যাকসিন কর্মসূচিও।

আরও পড়ুনঃ অডিটের জেরেই মিলল আসল তথ্য! বিহারে একদিনে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা প্রায় ৪ হাজার

এসব কঠিন পরিস্থিতির মধ্যেও আনন্দের খবর রাজ্যবাসীর জন্য। আজ এক সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয় মেট্রো শহরগুলির মধ্যে টীকা প্রদানে প্রথম স্থানে রয়েছে তিলোত্তমা কলকাতা। আর সেই পত্রিকার খবরের ছবিসহ নিজের ফেসবুক পেজে পোস্ট করেছেন রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। সেখানে লেখা, “পশ্চিমবঙ্গের মধ্যে ভ্যাকসিনের নিরিখে কলকাতায় এগিয়ে। টিকাদানে মেট্রো শহরের মধ্যে তিলোত্তমাই প্রথম।” এই খবরে কিছুটা হলেও স্বস্তিতে রাজ্যবাসী।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584