মোতড়া গ্রামের বাগানপাড়া এলাকায় পাকা রাস্তার দাবি এলাকাবাসীর

0
13

জৈদুল সেখ,মুর্শিদাবাদঃ 

স্কুল থেকে শুরু করে বাড়ির সমস্ত কাজ করতে যাওয়ার একমাত্র রাস্তা জল কাদা বিষাক্ত সাপে ভর্তি। মাঠের ফসল নেওয়া থেকে শুরু করে বাজার হাট করে ফিরতে হয় জল কাদা ভরা রাস্তার উপর দিয়ে। মোতড়া গ্রামের পাকা রাস্তা থেকে বাগান পাড়া প্রায় ৪০০ থেকে ৫০০ মিটার রাস্তা জল জঙ্গল কাদা।  রাস্তার অভাবে বন্ধ হতে চলেছে ছাত্র ছাত্রীদের স্কুল যাওয়া। তাছাড়া বিয়ে থেকে শুরু করে বিভিন্ন কাজ থমকে গিয়েছে মোতাড়ার বাগান পাড়া এলাকায়।

নিজস্ব চিত্র                                        

প্রসঙ্গত মুর্শিদাবাদের কান্দি থানার অন্তর্গত মোতড়া গ্রামের উত্তর পূর্বে বাগান পাড়া – মাঠাপাড়ায় প্রায় ৩০ – ৪০ পরিবার দীর্ঘ ১০ বছর ধরে বসবাস করছে। বেশিরভাগই দারিদ্র্য পরিবার,বেশিরভাগ মানুষ কৃষিকাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। ফলে মাঠের ফসল অর্থাৎ ধান থেকে শুরু করে পাট শাকসবজি বাড়িতে নিয়ে আসতে সমস্যায় পড়তে হয় রাস্তার কারণে।  সবচেয়ে বড়ো সমস্যায় পড়েছে স্কুল যাওয়া ছাত্র ছাত্রী এবং তাদের পরিবার।

আরও পড়ুনঃ রানিতলা থানা প্রাঙ্গনে স্বেচ্ছা রক্তদান শিবির

মোতড়া গ্রামের বিশিষ্ট শিক্ষক হজরতোল্লা সাহেব বলেন ” এই রাস্তাটা এক সময়ে মোতড়া গ্রামের একমাত্র রাস্তা ছিল। এই মেঠোপথ ধরে কান্দি হাজার পুর নবগ্রাম এবং মহলন্দী খুব সহজেই মানুষ যাতায়াত করতে পারত। কিন্তু কিছুটা দুরে পাশাপাশি একটা পাঁকা রাস্তা হয়ে যাওয়ার ফলে এই মেঠোপথে আস্তে আস্তে যাতায়াত বন্ধ হয়ে গিয়েছিল যদিও মাঠের কাজে এখনো ব্যবহার করা হয়। বর্তমানে এখানে বসতি গড়ে উঠেছে। এই পাড়ার ছেলেমেয়েরা খুব কষ্টে যাতায়াত করে। তাছাড়া মাঠের ফসল তুলতে খরচ বেশি হয়ে যায়। রাস্তাটা পাকা করা খুবই দরকার। এ বিষয়ে মোতড়া অর্থাৎ গোকর্ণ দুই নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত অঞ্চলের প্রধানের প্রতিনিধি মজিবুর সেখ বলেন “বাগানপাড়া রাস্তা তৈরি করার পরিকল্পনা অনেক আগেই নিয়েছি। ইতিমধ্যেই ঢালাই রাস্তার জন্য স্কিম দেওয়া হয়েছে আশাকরি খুব তাড়াতাড়ি কাজ শুরু হয়ে যাবে । এখন দেখার বিষয় ছাত্র ছাত্রীরা পাকা রাস্তায় হাসি মুখে হাঁটতে পারবে নাকি জল জঙ্গল কাদায় এলাকাবাসী কষ্টেই চলাচল করবে!

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here