জন্মদিনে ফিরে দেখা নীলাঞ্জনার স্রষ্টা

0
202

পল্লব দাস,ডেস্কঃ

জীবনমুখী নচিকেতা
সময়টা ১৯৯০ মহানগরী কলকাতাতে সংগীত সাহিত্য চর্চা চলছে,বেশ জনপ্রিয় হিন্দি গান।সেই নিয়ে অর্কেস্ট্রা দল সংখ্যা নেহাত কম নয়,কিন্তু রবীন্দ্রসংগীত থেকে বাংলা গান আধুনিক ধারাতে ঢুকতে সময় লাগছিলো।দলগত সংগীত চর্চা চলছিল কখনো সেটা বাজার মুখী প্রচেষ্টা কখনো নেহাত শখ।একটু আলাদা কাব্যিক গতি ধারা পেরিয়ে বাস্তব নিয়ে গান লেখাটা খুব একটা সহজ ছিল না।ছিপছিপে ছোটখাটো একজন মানুষ গিটার হাতে নিজেই দায়িত্ব নিলেন রদ বদলের,হয়ত প্রতিকূলতাকে চ্যালেঞ্জ করেই,সঙ্গে ছিল সুর আর লেখার অসামান্য ক্ষমতা।নব্বই এর দশকের স্থান কাল পরিস্থিতি বিচার করে একটি ধারণা দেওয়া খুব সহজ নয়।কখনো বেকার প্রেমিকের কথা কখনো রুঢ় বাস্তবতা,শহুরে জীবনযাত্রা নিয়ে,কখনো অনেক দূরের বৃদ্ধাশ্রমের কাহিনী,আপামর বাঙালি মনকে স্পর্শ করেছিল যার গান তিনি নচিকেতা চক্রবর্তী ।
অনুসন্ধিৎসু গীতিকাব্যের ভেতরে আজীবন নচিকেতা মানুষের জীবনের কথা বলেছেন।দুই
বাংলার জীবনমুখী গানের জনপ্রিয় এই শিল্পীর ১৯৬৫ সালের ১ সেপ্টেম্বর কলকাতা শহরে জন্ম হয়।উত্তর কলকাতার মনীন্দ্র কলেজ থেকে পড়াশোনা করেছেন, ছোটো থেকে গান শেখা তবে ইন্ডিয়ান ক্লাসিক্যাল সংগীতে পারদর্শিতা থাকা সত্ত্বেও জীবনমুখী গানের ধারা বেছে নেওয়ার কারণ হয়তো সময়।১৯৯৩ এ ‘এই বেশ ভালো আছি ‘ একক গানের অ্যালবামটি প্রকাশ হওয়ার পর শুরু হয় সাফল্যের কাহিনী।

ছবিঃপ্রতিবেদক

একের পর এক জনপ্রিয় গান তৈরি করেন।অন্তবিহীন পথ চলাই জীবন,
এই বেশ ভাল আছি,নীলাঞ্জনা, ফেরিওয়ালা,শতাব্দী,অনির্বাণ,অন্ধকার সরণি ধরে আরো অনেক জনপ্রিয় গানের স্রষ্টা নচিকেতা।’আমি পারি ‘ (১৯৯৮) অ্যালবামটিতে রাজশ্রী ,সরকারি কর্মচারি,নিলামে উঠেছে দেশ এর মত গান গুলি দিয়ে তৎকালীন দেশ কাল সমাজ পরিস্থিতিকে ব্যাঙ্গাত্মক আক্রমন করা হয়েছিল।এরপর এলো ১৯৯৯ সালে একটি অতি জনপ্রিয়
গান বৃদ্ধাশ্রম,খুব কম লোক আছেন যারা হয়ত বলবেন গানটা শোনেননি।শহুরে উন্নয়নশীল সমাজ জীবনে এক বৃদ্ধার করুন পরিস্থিতির কথা বলে বাঙালির মন ভেজায় গানটি।অন্যদিকে সে প্রথম প্রেম আমার নীলাঞ্জনা আজও বাঙালি তরুন দলের কাছে প্রেমের আইডল সং।যদিও এরপর ‘হঠাৎ বৃষ্টি’ ছবিটিতে সুরকার হিসেবে কাজ করেন নচিকেতা।সৃজিত চট্টোপাধ্যায়ের ছবি জুলফিকার এ এক পুরোনো মসজিদে গানটি জনপ্রিয় হয় তাঁর কণ্ঠে।নচিকেতা বঙ্গভূষণ,সঙ্গীতভূষণ ইত্যাদি সরকারি-বেসরকারি অনেক সম্মান পেয়েছেন।সমস্ত বয়সের শ্রোতাদের ছুঁতে পেরেছে তাঁর গান।

সফলতার আগে নচিকেতা জীবন খুব সুখদায়ক ছিল না চড়াই উতরায় মধ্যে দিয়ে উঠে এসেছে এত গান।প্রায় তিনশত গান লেখা হয়ে গেছে।সামাজিক রাজনৈতিক
অসঙ্গতির বিরুদ্ধে লেখার জন্য হেনস্থা হতে হয়েছে ,নিরন্ন থাকতে হয়েছে।হয়তো তবেই এরকম শিল্পী উঠে আসে এত সহ্যের পর বুকে ঠাসা বারুদের নির্গমন ঘটে গান লেখনীর মাধ্যমে।

আরও পড়ুনঃ  রবীন্দ্রনাথ আইনস্টাইন, আইনস্টাইন রবীন্দ্রনাথ সিউড়ি রেল স্টেশনে

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here