সাংবাদিক সম্মেলনে আক্রমণাত্মক অধীর

0
176

রিচা দত্ত,বহরমপুরঃ

Offensive adhir at press conference
নিজস্ব চিত্র

গতকাল মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পদপৃষ্ঠ হয়ে মহিলার মৃত্যু স্বীকার করতে কর্তৃপক্ষের টালবাহানা করার প্রতিবাদ জানিয়ে,আজ দুপুরে বহরমপুর জেলা কংগ্রেস কার্যালয়ে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে তৃণমূল পরিচালিত রাজ্য সরকার এবং তৃণমূল দলের বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক বহরমপুর সাংসদ অধীর চৌধুরী।পদপৃষ্ঠ হয়ে মহিলার মৃত্যুকে অস্বীকার করার ঘটনাকে তিনি লজ্জাজনক বলে উল্লেখ করে বলেন, হাসপাতালে আগুন নেভানোর যন্ত্র পর্যাপ্ত পরিমানে নেই। অথচ সরকার সুপার ডুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের নাম বলে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী।গোটা বিল্ডিং নীল সাদা রঙ হয়েছে অথচ হাসপাতালে আগুন নেভানোর যন্ত্র নেই। হাসপাতালের বেরনোর পথ খুব সংকীর্ন।পর্যাপ্ত পথ থাকলে জীবনহানি হত না। সারা বাংলা জুড়ে স্বাস্থ্যের পরিকাঠামো ভেঙ্গে পড়েছে। বাংলার সরকারের ত্রুটি বিচ্যুতির ফলে মানুষের মৃত্যুকে স্বীকার করতে চায়না।
মুখ্যমন্ত্রী তদন্ত না করলে তারা পি আই তদন্তের দাবী জানাবে বলে জানিয়েছেন অধীর বাবু।অন্যদিকে তৃনমূল থেকে বিজেপিতে যোগদান প্রসঙ্গে বলেন অধীর চোধুরী বলেন “ আজ বাংলার মুখ্যমন্ত্রী বলছেন আমার দল ছেড়ে লোক চলে যাচ্ছে আমি বেঁচে গেলাম।আমার দলে গাদ্দার আছে বিজেপি তুমি নিয়ে যাও।বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে বলেন আপনি কংগ্রেসকে এই ভাবে ভাঙ্গিয়ে ছিলেন।সেদিন আমরা বলেছিলাম যারা কংগ্রেস ছেড়ে যাচ্ছে তারা গাদ্দার।আর আপনি বলেছিলেন তারা সব সম্পদ। সেদিন আমি বলে ছিলাম আজ যে মেডিসিন আপনি আমাদের বিরুদ্ধে ব্যাবহার করছেন একদিন আপনিও সেই ঔষধের আপনিও স্বীকার হবেন।সেই সময় কংগ্রেস দলকে ভাঙতে আপনার ভালো লেগেছিল। আজ কেমন লাগছে দিদিভাই?আপনার দল চুরমার হয়ে বিজেপিতে জয়েন করছে।আপনি গনতন্ত্র মানেননি তাই আপনাকে এই শাস্তি পেতে হবে।আজ কংগ্রেস ভেঙ্গে মুর্শিদাবাদে প্রার্থী দিয়েছেন আপনি।

আরও পড়ুনঃ বিজেপিতে যোগ না দেওয়ার স্বীকারোক্তি সাংবাদিক সম্মেলনে

 

Offensive adhir at press conference
নিজস্ব চিত্র

আপনার দলে প্রার্থী জোটেনি তাই।যাদের পকেটে কংগ্রেসের সিম্বল আজ তারা হয়েছে তৃনমূলের প্রার্থী। কংগ্রেসের উচ্চিষ্টদের নিয়ে এখানকার কংগ্রেসকে ধ্বংস করতে চাইছেন?আপনার স্বপ্ন পূরন হতে আমরা দেব না। আপনি ৪২শে ৪২ আসা করছেন?আমরা তার সাথে শূন্য যোগ করে ৪২০টি বানিয়ে দেব কোন চিন্তা নেই বাংলার প্রতিটি বুথ স্পর্শকাতর বাংলার পুলিসকে আমরা বিশ্বাস করিনা। পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনে কেন্দ্রীয় বাহিনীর পুরো তৎপরতা দরকার।এখানকার পুলিস আধিকারিকরা উর্দিধারী তৃনমূলের নেতা নেত্রী।তাদের উপর বিন্দুমাত্র আস্থা নেই আমাদের।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here