লকডাউনে গৃহবন্দি বাঙালির গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস তুলে ধরতে ‘গৌরব সপ্তাহ’

0
37

মোহনা বিশ্বাস, কলকাতাঃ

করোনা ভাইরাসের প্রকোপে ত্রস্ত পৃথিবী। এই মারণ ভাইরাসের হাত থেকে বাদ যায়নি ভারত। করোনার থাবা বিস্তার করেছে আমাদের রাজ্যেও। দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। ঘরবন্দি প্রায় সকলেই।

discussion | newsfront.co
বাংলার গৌরব নিয়ে চলছে অনলাইন আলোচনা। নিজস্ব চিত্র

আত্মীয়-পরিজন-বন্ধু-বান্ধব-দৈনন্দিন কাজকর্ম থেকে দূরে থেকে মানুষ বিমর্ষ, আতঙ্কিত। কিন্তু বাংলার প্রথম মুক্তপন্থী বাঙালি জাতীয়তাবাদী সংগঠন ‘ঐক্য বাংলা’ মনে করে গৃহবন্দি থাকা এই দিনগুলোকে গঠনমূলকভাবে ব্যবহার করা যায়। আর এই উদ্দেশ্য নিয়েই ২২শে মার্চ থেকে ২৯শে মার্চ, বাংলায় লকডাউন এর প্রথম সপ্তাহে বাঙালির গৌরবের ইতিহাস মানুষের কাছে তুলে ধরতে ‘গৌরবসপ্তাহ’ কর্মসূচি পালন করল ‘ঐক্য বাংলা’।

আরও পড়ুনঃ কিছু মানুষ গুরুত্ব দিচ্ছেন না, সারপ্রাইজ ভিজিটে বেরিয়ে মত পুলিশ কমিশনারের

বাঙালি তথা ভারতীয়দের মধ্যে একটা ধারণা আছে যে বাঙালির কৃতিত্ব মূলত শিল্প, সাহিত্য, সংস্কৃতি জগতে সীমাবদ্ধ। কিন্তু লক্ষ্য করলেই দেখা যাবে ক্রীড়া, বিজ্ঞান, চিকিৎসা জগৎ, ব্যবসার জগৎ সহ জীবনের সমস্ত ক্ষেত্রে বাঙালির গৌরবময় ইতিহাস রয়েছে।

তবে এ বিষয়ে বাঙালি খুব একটা সচেতন নয়। বাণিজ্য থেকে ক্রীড়া, বিজ্ঞান থেকে চিকিৎসা – নানা ক্ষেত্রে বাঙালির গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসের কথা স্মৃতিচারণা করে বাঙালিকে এই বিষয়ে আরও সচেতন করাই ‘ঐক্য বাংলা’র উদ্দেশ্য। বর্তমানে লকডাউনের কথা মাথায় রেখে ‘গৌরবসপ্তাহ’ কর্মসূচিটি ছিল সম্পূর্ণ অনলাইন। এক সপ্তাহ ধরে ছিল এই কর্মসূচী। প্রতিটি দিনের জন্য ছিল একটি আলাদা বিষয়।

সেই বিষয়ের ওপর সারা দিন লেখা, ভিডিও, এবং ঐক্য যোদ্ধাদের করা লাইভের মাধ্যমে বিষয়টি প্রতিটা বাঙালির কাছে তুলে ধরার চেষ্টা করেন ঐক্যযোদ্ধারা।

আরও পড়ুনঃ পাবলিশার্স অ্যান্ড বুকসেলার্স গিল্ডের সাহায্য মুখ্যমন্ত্রীর আপতকালীন ত্রাণ তহবিলে

যে সব ক্ষেত্রে বাঙালির গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস রয়েছে কিন্তু আপামর বাঙালি সমাজ ততটা পরিমাণে ওয়াকিবহাল নয়, সেই দিকগুলো তুলে ধরার জন্য বিজ্ঞান, বাণিজ্য, চিকিৎসা, ক্রীড়া, মানভূম ভাষা আন্দোলন ও বঙ্গভঙ্গ বিষয় হিসেবে নির্ধারিত করা হয়েছিল।

ঐক্য বাংলা তার এই গৌরবসপ্তাহ কর্মসূচির শুভ সূচনা করে “বিজ্ঞান জগতে বাঙালি” এই বিষয়ের ওপর। বিজ্ঞানজগতের অন্যতম নক্ষত্র সত্যেন্দ্রনাথ বসু, মেঘনাদ সাহা, অমলকুমার রায়চৌধুরী সহ অন্যান্য বাঙালি বৈজ্ঞানিকদের ওপর আলোকপাত করেন ঐক্য যোদ্ধারা।

সত্যেন্দ্রনাথ বসু , মেঘনাদ সাহার মতো বৈজ্ঞানিকদের কৃতিত্ব হার্ড সায়েন্সে যুক্ত বাঙালি যুবসমাজকে উদ্বুদ্ধ করতে সাহায্য করবে বলে মনে করেন ঐক্যযোদ্ধা রঞ্জন। এই কর্মসূচীর সমর্থকদের প্রতিক্রিয়া ছিল চোখে পড়ার মতো।

প্রচুর বাঙালি ‘ঐক্যবাংলা’র এই কর্মসূচিকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। মানুষ গৃহবন্দি এবং অবসাদগ্রস্ত থাকা অবস্থাতে এই অভিনব কর্মসূচি গ্রহণ করার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন ঐক্যযোদ্ধাদের। অনেকে আবার আগামী দিনেও এই ধরণের কর্মসূচি করার অনুরোধ জানিয়েছেন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485