ফি কমানোর দাবিতে পার্কসার্কাসে একযোগে ২২ টি স্কুলের অভিভাবকদের বিক্ষোভ

0
26

শুভম বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতাঃ

‘নো স্কুল নো ফি’ এই দাবিতে বেশ কিছুদিন ধরেই বিক্ষোভ চলছে শহরের বিভিন্ন বেসরকারি স্কুলে। এমনকি নির্ধারিত বর্ধিত ফি না দিলে পড়ুয়াদের বাদ দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। তাই এবার একযোগে ফের বিক্ষোভে সামিল হল বেসরকারি স্কুলের অভিভাবকরা। বৃহস্পতিবার পার্ক সার্কাসে ২২ টি বেসরকারি স্কুলের অভিভাবকরা এই দাবিতে বিক্ষোভ দেখায়। তাদের দাবি এই লক ডাউনে কোনোমতেই টিউশন ফি ছাড়া অন্য কোনও ফি দেবেন না।

Fee hike | newsfront.co
প্রতীকী চিত্র

করোনার জেরে রাজ্যজুড়ে লকডাউনে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন বহু মানুষ। অনেকে আবার কর্মহীন না হলেও বেতন পাননি গত তিন মাসের। অনেকে আবার বেতন কেটে হাতে পেয়েছেন। সে ক্ষেত্রে পরিবার গুলি আর্থিক সংকটে দিন কাটাচ্ছেন। এ পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে বেসরকারি স্কুলগুলি যে হারে টিউশন ফি নিচ্ছে তা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না বলেই জানায়েছেন অভিভাবকরা।

আরও পড়ুনঃ করোনা আবহে বিধানসভায় ভার্চুয়াল অধিবেশন! চূড়ান্ত শিলমোহর দেবেন মুখ্যমন্ত্রী

রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং মুখ্যমন্ত্রী বারবার করে আবেদন জানিয়েছেন, বেসরকারি স্কুল গুলির কাছে যাতে কোনোভাবেই এই মুহূর্তে অতিরিক্ত ফি নেওয়া না হয়। কিন্তু স্কুলগুলির ক্ষেত্রে সরকারের সরাসরি কোনো যোগ না থাকায় তাদের ওপর কোন জোর খাটাতে পারছে না রাজ্য প্রশাসন। এই পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে খোলা চিঠি দিয়েছিলেন অবিভাবকদের সংগঠন। এরপর ফের আজকে একবার দরজার কাছে বাইশটি স্কুলের অভিভাবকরা সামিল হলেন ফি বৃদ্ধির বিরুদ্ধে বিক্ষোভে।

আরও পড়ুনঃ প্রোটোকল না মানায় করোনা পরীক্ষার অনুমতি প্রত্যাহার সুরক্ষা ল্যাবের

তাদের দাবি, এই মুহূর্তে যেহেতু স্কুল হচ্ছে না তাই তারা টিউশন ফি দিতে এখন রাজি নন। এক অভিভাবকের কথায়, “এখন বাচ্চারা বাড়িতেই রয়েছে। স্কুলের লাইব্রেরি খেলার মাঠ কম্পিউটার ল্যাব কোন কিছুই তারা ব্যবহার করছে না। স্কুলের বিদ্যুৎও এখন খরচ হচ্ছে না। কিন্তু তা সত্বেও স্কুল কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন খাতের টাকা সহ টিউশন ফি বাড়াচ্ছে। আমাদের পক্ষে এখন সেই বর্ধিত বেতন দেওয়া সম্ভব নয়। আমরা একযোগে এই লড়াইয়ে শেষ দেখে ছাড়ব।’

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584