রমজানে কেনাকাটার ভিড়ের ড্রোন চিত্র দেখে চক্ষু চড়কগাছ কলকাতা পুলিশের

0
22821

শুভম বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতাঃ

নববর্ষ থেকে অক্ষয় তৃতীয়া, নিজেদের সমস্ত অনুষ্ঠান ঘরে বসেই পালন করছেন রাজ্যের এক শ্রেণীর মানুষ। আবার রমজান মাস শুরু হয়ে যাওয়ায় সামাজিক দূরত্ব মানছেন না রাজ্যের আরেক শ্রেণির মানুষ। সম্প্রতি পার্ক সার্কাস স্টেশনের পাশে আল্লারাখা মার্কেটে ড্রোনের সাহায্যে সাধারণ মানুষের ভিড়ের ছবি দেখে চোখ কপালে ওঠার জোগাড় লালবাজারের শীর্ষকর্তাদের।

gathering | newsfront.co
আজকে পার্ক সার্কাস রেলস্টেশনের পাশে আল্লারাখা মার্কেট এলাকার ড্রোন চিত্র। চিত্রঃ কলকাতা পুলিশ সূত্রে প্রাপ্ত

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের নির্দেশে দোকানপাট চালু হলেও সামাজিক দূরত্ব না মেনে কেনাকাটা করলে পুলিশ যে কঠোর ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবে, তা এ দিন ফের ঘোষণা করলেন কলকাতা পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা। প্রত্যেক থানার ওসি ও পুলিশকর্তাদের সেদিকে নজর রাখার নির্দেশ দিলেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ করোনা সন্দেহে চিকিৎসাধীন ব্যক্তির মৃত্যু আলিপুরদুয়ারে

শুধু আল্লা রাখা মার্কেটই নয়, শহরের আরও বিভিন্ন খোলা মার্কেটে রমজানের কেনাকাটার জন্য এরকম ছবিই চোখে পড়েছে কলকাতা পুলিশের। সামান্য কিছু ব্যতিক্রম থাকলেও এই ছবিতে আতঙ্ক বেড়েছে পুলিশকর্তাদের। শহরের বেশ কিছু বড় বাজার ঘিরে এবং চ্যানেলিং করে নজরদারি করা সম্ভব হলেও ছোটখাটো অনেক বাজারই পুলিশের নজরদারির বাইরে থেকে যাচ্ছে। সেখানে ড্রোন দিয়ে ছবি তুলে প্রমাণ সংগ্রহ করছে পুলিশ।

পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা বলেছেন, শুধু সামাজিক দূরত্ব বজায়ই নয়, ক্রেতা ও বিক্রেতা উভয়ের জন্যই মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। যাঁরা রমজান মাসে রোজা রাখছেন, তাঁদের কেনাকাটার ক্ষেত্রে যেন কোনও অসুবিধা না হয়। তবে কেনাকাটার সময় প্রত্যেককেই অবশ্যই পারস্পরিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে। ভিড় নজরে পড়লে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নিতে হবে পুলিশ আধিকারিকদের। নিয়ম মেনে মাস্ক না পরায় এবং রাস্তায় থুতু ফেলায় ইতিমধ্যেই প্রত্যেকদিন ব্যাপক হারে গ্রেফতারি চালাচ্ছে পুলিশ। অতিরিক্ত বাড়াবাড়ি করলে বাজার সাময়িক বন্ধও করে দেওয়া হতে পারে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485