বেলুড়ে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক বক্তব্য ঘিরে বিতর্ক, মোদির আগমনে অসন্তুষ্ট মিশনের ভক্তরা

0
68

নিউজফ্রন্ট, ওয়েবডেস্কঃ

narendra modi | newsfront.co
মহারাজদের সাথে প্রধানমন্ত্রী। নিজস্ব চিত্র

কলকাতায় মোদি সফরের পরই রাজনৈতিক মহলে নানান কথা উঠছে। বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রীর বেলুড় সফরের পর নতুন করে বিতর্ক শুরু হয়েছে বেলুর কর্তৃপক্ষের ভূমিকা নিয়ে।

narendra modi | newsfront.co
বেলুড়ে বক্তব্য রাখছেন প্রধানমন্ত্রী। নিজস্ব চিত্র

মঠের ভক্তদের একাংশের প্রশ্ন বেলুর মঠে কেন মোদিকে নিয়ে আসা হল এবং এরকম একটা অরাজনৈতিক মঞ্চে দাঁড়িয়ে তিনি কীভাবে সিএএ নিয়ে রাজনৈতিক বক্তব্য পোষণ করেছিলেন।

একটি জাতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, স্বামী আত্মস্থানন্দের থেকে দীক্ষাপ্রাপ্ত একজন ভক্ত গৌতম রায় বলছেন, মিশন গত দু’বছর ধরে রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সংঘের তাদের অনুগতদের রাজনৈতিক মতাদর্শ এবং কর্মকাণ্ড নিয়ে যথেষ্ট প্রচারমুখো হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ কাঁথিতে বিবেকানন্দ মেলা-প্রদর্শনী

monk | newsfront.co
ভক্ত ও ব্রহ্মচারী-সন্ন্যাসীদের ভিড়। নিজস্ব চিত্র

মিশনের মতো এরকম একটি পীঠস্থান থেকে এটা আশা করা যায় না, যা যে কোনও ব্যক্তির শোধন স্থান হিসাবে অন্যতম আঁতুড় ঘর। সেখানে দেশের প্রধানমন্ত্রী এসে রাজনৈতিক বক্তব্য রাখছেন, এটা কখনওই শোভা পায় না।

narendra modi | newsfront.co
নরেন্দ্রনাথের ঘরে নরেন্দ্র। নিজস্ব চিত্র

জানা গেছে, মিশনের অনেক ভক্তই একটি অফিসিয়াল চিঠি দিয়ে কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছেন, স্বামীজীর ১৫৭ তম জন্মদিবস উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর বেলুড় সফর প্রত্যাখ্যান করতে।

আরও পড়ুনঃ সিএএ বিরোধী আন্দোলনে ইনসাফ না মেলা পর্যন্ত প্রতিবাদ চলবে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ পার্ক সার্কাস

এ বিষয়ে বেলুর মঠের জেনারল সচিব সুবীরানন্দ মহারাজ বলেছেন, মিশন সর্বান্তকরণে একটি অরাজনৈতিক স্থান। প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক বক্তব্যের উপর তিনি কোনও মন্তব্য করতে চান না। তাঁরা ঘর সংসার ছেড়ে এখানে এসেছেন আধ্যাত্মিক জীবনের সন্দর্শ লাভ করতে। সুতরাং তাঁরা তাঁদের আচার বিচারে সম্পূর্ণরূপেই অরাজনৈতিক থাকবেন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485