কালী পুজোর থিমে মহম্মদ আলী পার্কের পুনরাবৃত্তি

0
519

নিজস্ব সংবাদদাতা,বহরমপুর

কলকাতার মহম্মদ আলী পার্কের দুর্গাপূজা থিমের পুনরাবৃত্তি ঘটল বহরমপুর আমরা ক’জন ক্লাবের সার্বজনীন কালি পুজোর থিমে।সাময়িক ভাবে ভুয়ো ডাক্তার থিম মনে হলেও আসলে তা বির্তক বাঁচানোর চেষ্টা ব্যতীত আর কিছুই নয়।
বহরমপুর স্কোয়ার ফিল্ডের ফৌজদারি কোর্ট মার্কেটের সামনের এই পুজো থিমের পরিকল্পনা জনৈক ডি কে মিত্র’র।আমরা নিউজ ফ্রন্টের পক্ষ থেকে পুজো উদক্তাদের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগের করে জানতে চাই যে,এই ধরণের পুজো থিম করে তাঁরা মানুষের কাছে কি বার্তা দিতে চান? জনৈক উদকক্তা জানান থিমেই বার্তা দেওয়া আছে দেখে নিন। পরের প্রশ্নে যাওয়ার পূর্বেই তিনি যোগাযোগ বিছিন্ন করে দেন।

মহম্মদ আলী পার্কের পুজো থিমের বিরুদ্ধে সমগ্র রাজ্য জুড়ে যে প্রতিবাদ ধ্বনিত হয় তার পরও এই ধরনের থিমের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন জেলার নামী ডাক্তারা এবং চিকিৎসক সংগঠন। চিকিৎসক সংগঠন মেডিকেল সার্ভিস সেন্টারের মুর্শিদাবাদ জেলা কমিটির সম্পাদক ডাঃ রবিউল আলম জানান যে, এই ধরনের থিমের মধ্য দিয়ে আসলে মানুষ ক্ষেপানো হয়, চিকিৎসা ব্যবস্থার কোনো উন্নতি সাধন করা যায় না। ডাক্তারি পেশাকে কালিমা লিপ্ত করে এই পুজো কমিটিগুলি আসলে সমাজ বিরোধী কাজ করছে।

সমগ্র চিকিৎসা ব্যবস্থায় চিকিৎসক একটি অংশমাত্র কিন্তু সমগ্র রাজ্য বা দেশজুড়ে আজ চিকিৎসা ব্যবস্থার যে ভয়াবহতা ফুটে উঠছে তার জন্য দায়ী কে? কই তা নিয়ে তো কোন থিম হয় না।প্রশ্ন উঠছে সর্বত্র।একদিকে ডাক্তারদের সরকারী চোখরাঙানি আর দিকে গণধোলাই এবং সামাজিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে সম্মানহানি করে যথাযথ চিকিৎসা বব্যস্থার ক্ষতিই সাধিত হচ্ছে। এই পুজোর মরসুমে ডেঙ্গির ভয়াবহতায় সমগ্র রাজ্য যখন সন্ত্রস্ত তখন অক্লান্ত পরিশ্রম করে যে চিকিৎসকরা চিকিৎসা দিয়ে চলছেন তখন এই ধরনের থিম ডাক্তারদের মনোবলে আঘাত করবে ফলে প্রসাশনের উচিৎ এই ট্রেন্ডের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া। বহরমপুরের এক নামী জেনারেল ফিজিশিয়ান মজা করে নিউজ ফ্রন্ট প্রতিবেদকে বললেন যে, “আয়োজকদের বলুন না,সরকারি ব্লাড ব্যাঙ্ক থেকে রক্ত চুরি যাওয়া, পি পি পি মডেলের প্যাথলজী অকারণ বন্ধ থাকা, হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার জন্য যে দালালি রাজ্ চলছে তা নিয়ে একটা থিম করতে। ”

আসলে সার্বিকভাবে রাজ্যের চিকিৎসা ব্যবস্থার দুর্বলতাকে চাপা দেওয়ার জন্য চিকিৎসকদের বলির পাঁঠা করা হচ্ছে আর সমাজিক অনুষ্ঠানের এই থিম দিয়ে তাতে আগুনে ঘৃতাহুতি দেওয়া হচ্ছে। আর আড়ালে থেকে যাচ্ছে চিকিৎসা ব্যবস্থার দুরারোগ্য রোগ।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here