অসম-মিজোরাম সীমান্ত সংঘর্ষে নিহত পুলিশের ৬ কর্মী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের হস্তক্ষেপের দাবি দুই রাজ্যেরই

0
37

নিজস্ব প্রতিবেদন, নিউজ ফ্রন্টঃ

অসম- মিজোরাম সীমান্ত সমস্যা দীর্ঘদিনের, হঠাৎই সেই সমস্যা বড় আকার ধারণ করে সোমবার। অসম-মিজোরাম সীমান্ত সংঘর্ষে মৃত্যু হয় অসম পুলিশের ৬ জন জওয়ানের।

Assam Mizoram border clash
সৌজন্যেঃ টাইমস অফ ইন্ডিয়া

অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা এদিন টুইট করে জানান একথা। সীমান্ত সংঘর্ষে নিহত ৬ পুলিশ কর্মীর পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে হিমন্ত লিখেছেন সংবিধান নির্ধারিত সীমান্ত রক্ষা করতে গিয়ে প্রাণ গিয়েছে ৬ জন পুলিশকর্মীর।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অসম-মিজোরাম সীমান্তবর্তী এলাকায় ৮ জন কৃষক পরিবারের ঘর জ্বালিয়ে দেয় কিছু দুষ্কৃতী। এই ঘটনার পর থেকেই ধুন্ধুমার লেগে যায় সীমান্তবর্তী ওই অঞ্চলে।

মিজোরাম পুলিশের ডিআইজি লালবিয়াকথাঙ্গা খিয়াংলে জানিয়েছেন, রবিবার রাত সাড়ে ১১ টা নাগাদ সীমান্তের আট কৃষক পরিবারের ঘরে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। যদিও সেখানে কেউ ছিলেন না। এই ঘরগুলি অসমের সীমান্তবর্তী গ্রাম ভাইরেংলে বসবাসকারী কৃষকদের। এই ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে এবং তদন্ত চলছে।

আরও পড়ুনঃ প্রধান বিচারপতির এক্তিয়ার ঠিক কতটা? সুপ্রীম কোর্টে জানতে চাইল হাইকোর্ট

চলতি মাসেই কদিন আগে মিজোরামের এক কৃষকের খেত, বাগানও নষ্ট করে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। অশান্তির সূত্রপাত তখন থেকেই, সীমান্তের দিকে লাঠিসোটা নিয়ে ছুটে যায় দুই রাজ্যেরই কিছু লোক। তারপরেই অসম সরকারের সীমান্ত পরিদর্শনকারী দলের একটি গাড়ি লক্ষ্য করে গ্রেনেড ছোঁড়া হয়, পরপর দুটি বিস্ফোরণ ঘটে সে দিন। আর সেই থেকেই জারি রয়েছে অশান্তি। দিন দুয়েক আগেই উত্তর-পূর্বের সব মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তাও মেটেনি সমস্যা উল্টে ঘটে গেল এই ঘটনা। এই ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের হস্তক্ষেপের দাবি জানিয়েছেন দুই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীই।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here