মন্তেশ্বরে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যদের বিডিওকে ডেপুটেশন

0
9

শ্যামল রায়,কালনাঃ

স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যদের কাছ থেকে বেআইনি ভাবে টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠল স্বনির্ভর গোষ্ঠীর দলনেত্রীর বিরুদ্ধে।বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন দলের কাছ থেকে নিয়ম বহির্ভূতভাবে টাকা নেয়ার অভিযোগে স্মারকলিপি দেয়া হলো বিডিওকে।

মঙ্গলবার মন্তেশ্বর ব্লকের বামন পাড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের সাতটি স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যরা বিডিওর কাছে অভিযোগ পত্র জমা দেন।

ডেপুটেশন কর্মসূচি।নিজস্ব চিত্র

সদস্যদের অভিযোগ যে দল করার সময় এবং দলের লোন করার সময় বিভিন্ন অজুহাতে হাজার হাজার টাকা বিনিয়োগ ভাবে নিয়ে থাকেন গ্রাম পঞ্চায়েতে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর প্রধান দলনেত্রী।অভিযোগ উঠেছে লাইলি খাতুন ও নাজমা খাতুন এর বিরুদ্ধে।

অভিযোগ করেছেন প্রিয়া মল্লিক,পুষ্প মল্লিক, মিনতি ঘোষ ,স্বর্ণময়ী প্রধান প্রমুখের বিভিন্ন স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যরা।তাদের অভিযোগ যে তারা বিভিন্ন গ্রামের স্বনির্ভর গোষ্ঠীর দলনেত্রী, কিন্তু বামন পাড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীন সমস্ত দলের প্রধান লাইলি এবং নাজমা তাদের কাছ থেকে আর এফ প্রকল্পে বিভিন্ন ভাবে টাকা নিয়েছেন এবং দল এবং লোন করার নামে বিভিন্ন সময়ে একাধিক বার হাজার হাজার টাকা নিয়ে তাদেরকে প্রতারিত করেছেন।

আরও পড়ুনঃ স্থায়ীকরন ও উপযুক্ত পারিশ্রমিকের দাবিতে অঙ্গনওয়ারী কর্মীদের ডেপুটেশন

টাকা ফেরতের দাবিতে সরব হয়েছেন এই সকল স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যরা।বামন পাড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীন পূর্ব খাপারা ও বামুন পাড়া গ্রামের কয়েকশো মহিলা সদস্যরা এই অভিযোগ করেন সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিকের কাছে।

প্রতিবাদ ও টাকা ফেরতের দাবিতে বিডিও অফিসে বিক্ষোভ সমাবেশ করেন স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলা।সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক বিপ্লব দত্ত জানিয়েছেন যে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা আমার কাছে এক স্মারকলিপি দিয়েছেন বিষয়টি খতিয়ে দেখে দ্রুত তদন্ত করা হবে।

যদিও লাইলি খাতুন ও নাজমা খাতুন গোটা বিষয়টি সম্পর্কে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485