মূর্তি ভাঙার প্রতিবাদে সাঁইথিয়াতে ধিক্কার মিছিল তৃণমূলের

0
24

পিয়ালী দাস,বীরভূমঃ

the rally of tmc for broken statue of vidyasagar
নিজস্ব চিত্র

মঙ্গলবার কলকাতায় বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের রোড শো থেকে বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ে বিজেপি কর্মীদের হামলার ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে সাঁইথিয়া শহরের তৃনমূলের বিধায়ক নীলাবতি সাহার নেতৃত্বে এক বিশাল প্রতিবাদ মিছিল সাঁইথিয়া শহর প্রদিক্ষন করে।মূর্তি ভাঙার এই ঘটনায় রাজ্যজুড়ে নিন্দা শুরু হয়।বুধবার রাজ্য জুড়ে শুরু হয় প্রতিবাদ মিছিল।

সাঁইথিয়া বিধানসভার তৃণমূলের বিধায়ক নীলাবতী সাহা পেশায় শিক্ষিকা,তিনি বলেন “ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মূর্তি যারা ভেঙেছেন আদৌও তারা শিক্ষায় শিক্ষিত হয়েছেন কিনা তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ আছে।ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের সমাজ সংস্কারের ভূমিকা বিজেপি জানে না।জানবেই বা কি করে,একজন মনীষীর জন্য যে শ্রদ্ধা,যে সম্মান, ঐতিহ্য,আবেগ,থাকা প্রয়োজন বিজেপির কোন নেতার মধ্যেই দৃশ্যমান হয়নি।

আরও পড়ুনঃ বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার প্রতিবাদে সিপিআইএম এর মিছিল

ছাত্রছাত্রীরা বিক্ষোভ দেখাতে পারেন, তাই বলে আমরা যারা সাংবিধানিক পদে বসে রয়েছি,যারা নির্বাচনে লড়াই করে সংবিধান রক্ষার দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিই এবং দেশ গড়ার ক্ষেত্রে ভূমিকা নিয়ে থাকি তাদের কাছে এ আচরন অনভিপ্রেত। ছাত্ররা হচ্ছে ভবিষ্যতের দেশ গরার মুখ।দেশের ভালো মন্দ বোঝার ক্ষেত্রে তাদের আন্দোলন কি সবসময় অগ্রাধিকার দেওয়া উচিত।

ছাত্র সমাজ যদি প্রতিবাদের ভাষা হারিয়ে ফেলে,দেশ গড়ার না ডাক দেয় তবে একজন শিক্ষক বা শিক্ষিকার ব্যর্থতা।শিক্ষা পিতা ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর সমাজের প্রত্যেকটি মানুষের মধ্যে সেই গঠনমূলক চরিত্র গড়ে তুলেছেন ওনার মূল্যবান কার্যকলাপের মধ্য দিয়ে। তাই আগামী দিনে যতবারই বাংলার মনীষীদের ওপর এই ধরনের হামলা হবে ততবার ই প্রতিবাদে গর্জে উঠবে সমাজের সর্বস্তরের মানুষ।”

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485