আসছেন প্রধানমন্ত্রী! কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হল ব্রিগেড

0
17

উজ্জ্বল দত্ত, কলকাতাঃ

আগামীকাল বিজেপির ব্রিগেড সমাবেশে যোগ দিতে কলকাতায় আসছেন নরেন্দ্র মোদী। প্রধানমন্ত্রীর এই সফর ঘিরে থাকছে নিরাপত্তার কড়াকড়ি।

PM Modi in Bengal | newsfront.co
ফাইল চিত্র

ঢেলে সাজানো হচ্ছে ব্রিগেড চত্বর। কী কী থাকছে ব্রিগেড প্রাঙ্গণে? মূল মঞ্চ দুশো মিটার বাই দেড়শো মিটার। দু-পাশে পঞ্চাশ মিটার জায়গা ছেড়ে ডান ও বাঁ দিকে আলাদা আরও দুটো মঞ্চ। প্রথমটি প্রধানমন্ত্রী-সহ কেন্দ্র ও রাজ্য বিজেপির শীর্ষ নেতাদের জন্য।

পাশের দুটির প্রথমদিক বাকী রাজ্য ও জেলা নেতা শেষের টি সংবাদমাধ্যমের জন্য। এরপর সামনে পরপর চারটি নিরাপত্তা ব্যারিকেড। প্রথমটির দায়িত্বে কলকাতা পুলিস। পরের দুটি এস পি জি এবং শেষেরটি পি এম ও স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপের দায়িত্বে। গোটা ব্রিগেড চত্বরে মোট দেড়শোটি সিসিটিভি ক্যামেরা। মঞ্চের পিছনেই মনিটরিং কন্ট্রোল রুম।

মাঠের আয়তন কিছুটা ছোট হচ্ছে কারণ প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার স্বার্থে মাঠ ঘিরে ফেলা হচ্ছে শালখুঁটির বাউন্ডারি দিয়ে। সমস্ত প্যান্ডেল মুড়ে দেওয়া হবে গেরুয়া কাপড়ে। মূল মঞ্চের মাথার ওপর লাইট অ্যালুমিনিয়াম বিম। বিমগুলি ফ্রেম করে তার ওপর হার্ড ফাইবার শিট। মূল মঞ্চে থাকবে মোট কুড়িটি বাতানুকূল যন্ত্র। মঞ্চের বাঁ দিকে মিডিয়ার ওবি ভ্যান পার্কিং-এর জায়গা রাখা হবে।

আরও পড়ুনঃ ক্ষমতায় ফিরলে প্রবীণ বিদায়ী বিধায়কদের জন্য বিধানপরিষদ, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

যান চলাচলে বেশকিছু নিষেধাজ্ঞা জারি করা হচ্ছে। সাতই মার্চ ভোরবেলা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত শহরে কোনও পণ্যবাহী গাড়ি ঢুকতে দেওয়া হবে না। ব্রিগেড লাগোয়া চত্বরে ট্রাম চলাচল বন্ধ রাখা হবে। হেস্টিংস, ক্যাথিড্রাল রোড, খিদিরপুর রোড, ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল চত্বর, এজেসি রোড এবং হসপিটাল রোড সহ একাধিক জায়গায় যান নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

মোতায়েন থাকবে বিপুল সংখ্যক ট্র্যাফিক পুলিশ। যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে বিকল্প রাস্তা দিয়ে গাড়ি ঘুরিয়ে দেওয়া হবে। কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব সহ রাজ্য শীর্ষ নেতৃত্বও ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ড প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে বার বার যাচ্ছেন। শুক্রবার এরাজ্যের পর্যবেক্ষক ও সর্বভারতীয় বিজেপির সাধারণ সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গীয় ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ড পরিদর্শনে আসেন।

আরও পড়ুনঃ এনপিআর(NPR)-এর ফিল্ড ট্রায়াল শুরু হচ্ছে শীঘ্রই

কৈলাস বিজয়বর্গীও বলেন,’ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে বাংলার সব থেকে বড় জনসভা করা হবে। যা আগে কখনও হয়নি। তাই বিজেপির জন্য ব্রিগেড অনেকটাই ছোট। ব্রিগেড মঞ্চে বেশ কিছু নামি অভিনেতা, তৃণমূলের বিধায়ক ও সাংসদ বিজেপিতে যোগদানের সম্ভাবনা রয়েছে।

তিনি আরও জানান,বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এবং কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র নাম এবার বিজেপি প্রার্থী তালিকায় থাকতে পারে। এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। বিজেপি একটি পরিবার দল নয়। বৃহত্তর দল। ফলে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব তরফেই দুহাজার একুশ বিধানসভা নির্বাচনের প্রার্থী ঘোষণা আজ এবং আগামীকাল হতে পারে বলে তিনি জানান।

এদিকে জানা গেছে, শুক্রবার থেকেই ব্রিগেড সভামঞ্চ দখল নিল প্রধানমন্ত্রীর এসপিজি টিম। এদিন হেলিকপ্টারেও মহড়া করা হয়েছে। এছাড়াও পুলিশ কুকুর নিয়ে সভা মঞ্চ ঘুরে দেখলেন সভার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা এসপিজি টিম। এদিন রাত থেকেই সভা মঞ্চ দখল নিচ্ছে কুড়ি জনের কমান্ডো টিম।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485