ত্রাণ বিলি নিয়ে এবার নেপোটিজমের অভিযোগ তুলে টুইটে মুখ্যমন্ত্রীকে বিঁধলেন রাজ্যপাল

0
35

শুভম বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতাঃ

বহুদিন চুপচাপ থাকার পর শুক্রবার সেই নৈঃশব্দ্য ভেঙে ফের সরব হলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। আমফান পরবর্তীতে ত্রাণ বন্টন নিয়ে ফের মমতা সরকারকে আক্রমণ করলেন রাজ্যপাল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে খোঁচা দিয়ে টুইটে লিখলেন, ‘ ত্রাণ বন্টন কোন রাজনৈতিক দলের কাজ নয়।’ আর কী লিখলেন টুইটে? মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে তাঁর টুইট, ‘ ত্রাণ বন্টন নিয়ে দুর্নীতি, স্বজনপোষণ ও রাজনীতির অভিযোগে রাজ্যে আলোড়ন। পূর্ব মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার বিডিও অফিস ঘেরাও হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক।’

Jagdeep Dhankhar | newsfront.co
ফাইল চিত্র

রাজ্যের বেশ কিছু জায়গায় ত্রাণ বিলি কে কেন্দ্র করে বিডিও দের ঘেরাও করা হয়েছে। পূর্ব মেদিনীপুর এবং দুই চব্বিশ পরগনা জেলায় আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি রীতিমতো উদ্বেগজনক। টুইটারে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর আরও লিখেছেন, ত্রাণ বন্টন করার কোনও রকম আইনি অধিকার কোনো রাজনৈতিক দলের নেই। এই ধরনের কাজ করা মানে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করা। এই ত্রাণ দুর্নীতি আরো বড় কেলেঙ্কারির জন্ম দেবে তাই সময়ে পদক্ষেপ করা প্রয়োজন।

আরও পড়ুনঃ কয়লা খনিতে ১০০ শতাংশ বিদেশি বিনিয়োগ ‘আত্মনির্ভর ভারত’-এর লক্ষণ নয়, মোদীকে চিঠি মমতার

তিনি টুইটে আরও লিখেছেন, ‘ যাঁরা আর্থিক সাহায্য পাবেন তাঁদের তালিকা পঞ্চায়েত দফতরে রাখতে হবে। ত্রাণ বন্টন কোন রাজনৈতিক দলের কাজ নয়। প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের নাম বাদ গেলে সরকারি অফিসারদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করতে হবে। যাঁরা ক্ষতিগ্রস্ত নন অথচ টাকা পেয়েছেন তাঁদের টাকা ফেরত নিতে হবে।’

আরও পড়ুনঃ বাংলায় লকডাউন বৃদ্ধির কারন জানতে চেয়ে শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবী বিজেপির

প্রসঙ্গত, আমফান পরবর্তী পরিস্থিতিতে ত্রাণ বিলি কে কেন্দ্র করে রাজ্যজুড়ে শাসক দল তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। রাজ্যপাল আগেই ত্রাণ বিলি নিয়ে রাজনীতি করা হচ্ছে বলে সরব হয়েছিলেন। অথচ সেই সব গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান থেকে শুরু করে পঞ্চায়েত সদস্যরা তাদের নিজের আত্মীয়-স্বজন পরিচিতদের মধ্যে ত্রাণের নামে হাজার হাজার টাকা নিজেদের পকেটে ঢুকিয়েছেন বলে অভিযোগ।

ফলে রাজ্যের গ্রামাঞ্চলের মানুষ রীতিমত ক্ষোভে ফুঁসছেন। যদিও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় নবান্নে সর্বদল বৈঠকে আমফান পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে বিশেষ কমিটি গঠন করে দিয়েছেন। আগামী ৭ দিনের মধ্যে ত্রাণ সংক্রান্ত সমস্ত সমাধানে ওই দল ব্যবস্থা নেবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here