মোদি সরকারের প্রথম ৫ বছরে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা ৩২৬, দোষী সাব্যস্ত ৬, তথ্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক

0
40

নিজস্ব প্রতিবেদন, নিউজ ফ্রন্টঃ

কিছুদিন আগেই বিতর্কিত রাষ্ট্রদ্রোহ আইনের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে সুপ্রীম কোর্ট। দেশের প্রধান বিচারপতি এন ভি রমান্না বলেন চরম অপব্যবহার হচ্ছে এই আইনটির। তিনি কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন তোলেন, স্বাধীনতা আন্দোলন দমন করতে যে আইন ব্যবহার করা হতো সেই ১২৪(এ) ধারা স্বাধীনতার ৭৫ বছর পেরিয়ে যাবার পর এখনো কেন বাতিল করা যায়নি!

Court order
প্রতীকী চিত্র

এরপরেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য থেকে জানা গিয়েছে মোদী সরকারের আমলে অর্থাৎ ২০১৪ থেকে ২০১৯-এই মাত্র পাঁচ বছরে গোটা দেশে বিতর্কিত রাষ্ট্রদ্রোহ আইনে ৩২৬টি মামলা দায়ের হয়েছে। এর মধ্যে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন মাত্র ৬ জন। ২০২০ সালের তথ্য এখনো জানাতে পারেনি কেন্দ্র।

রাষ্ট্রদ্রোহ আইনে মামলা দায়ের করায় এক নম্বরে রয়েছে অসম। সেখানে ৫৪টি রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার মধ্যে ২৬টি মামলায় চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে এবং ২৫টির বিচারপ্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। যদিও একটি মামলাতেও এতদিনের মধ্যে কাউকে দোষী সাব্যস্ত করা যায়নি। ঝাড়খণ্ডে এই পাঁচ বছরে ৪০টি রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা দায়ের করা হয়েছে, ২৯টি মামলায় চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে, ১৬টি মামলায় বিচারপ্রক্রিয়া শেষ হয়েছে এবং দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন মাত্র ১জন।

আরও পড়ুনঃ দেশদ্রোহিতা আইনের সাংবিধানিক বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ করে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ দুই মহিলা সাংবাদিক

হরিয়ানায় এই আইনে ৩১টি মামলা দায়ের হয়েছে। তার মধ্যে ১৯টি মামলায় চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে এবং ৬টি মামলায় বিচারপ্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। সেখানেও দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন একজন।

২০১৪ থেকে ২০১৯-এর মধ্যে জম্মু-কাশ্মীর বিহার, এবং কেরলে ২৫টি করে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা দায়ের করা হয়েছে। বিহার এবং কেরলে একটি মামলাতেও চার্জশিট দাখিল করা হয়নি। জম্মু-কাশ্মীর তিনটি মামলায় চার্জশিট দাখিল করা হলেও দোষী সাব্যস্ত হননি একজনও। ২০১৪-২০১৯ এই পাঁচ বছরে উত্তরপ্রদেশে ১৭টি এবং পশ্চিমবঙ্গে ৮টি রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা দায়ের করা হয়েছে, তার মধ্যে উত্তরপ্রদেশে ৮টি এবং এবং পশ্চিমবঙ্গে ৫টি মামলায় চার্জশিট দাখিল হলেও কেউ দোষী সাব্যস্ত হননি।

আরও পড়ুনঃ ফেসবুক পোস্ট ঘিরে বিতর্ক, সোমবারই মনিপুরের সমাজকর্মীকে মুক্তির নির্দেশ শীর্ষ আদালতের

দিল্লিতে ২০১৪-২০১৯ এই সময়ের মধ্যে চারটি রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা দায়ের করা হয়েছে, কিন্তু একটিতেও চার্জশিট দাখিল করা হয়নি। মেঘালয়, মিজোরাম, ত্রিপুরা, সিকিম, আন্দামান ও নিকোবর, লক্ষদ্বীপ, পুদুচেরি, চণ্ডীগড়, দমন ও দিউ, দাদরা ও নগর হাভেলিতে এই সময়কালে কোনও রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা দায়ের হয়নি। মহারাষ্ট্রে ২০১৫ সালে, পঞ্জাবে ২০১৫ সালে এবং উত্তরাখণ্ডে ২০১৭ সালে একটি করে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা দায়ের হয়েছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৯ সালে দেশে সবচেয়ে বেশি রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা দায়ের হয়েছে, ৯৩টি। ২০১৮ সালে ৭০টি, ২০১৭ সালে ৫১টি, ২০১৬ সালে ৩৫টি, ২০১৫ সালে ৩০টি এবং ২০১৪ সালে ৪৭টি রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here