চন্দ্রকোনার লক্ষীপুরে তৃণমূলের দলীয় অফিসে হামলা, অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

0
64

নিজস্ব সংবাদদাতা, পশ্চিম মেদিনীপুরঃ

চন্দ্রকোনার লক্ষীপুর গ্রামে তৃণমূল পার্টি অফিসে গতকাল রাতে অতর্কিতে বিজেপির কর্মীরা হামলা চালায় বলে অভিযোগ।অাহত হন ছয়জন তৃণমূলের বুথের কর্মী।অাশঙ্কাজনক অবস্থায় ঘাটাল মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি কালিপদ চৌধুরী। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল রাতে চন্দ্রকোনা ১ ব্লকের লক্ষীপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের পূর্ব বুথের তৃণমূলের পার্টি অফিসে পাঁচ থেকে ছয়জন কর্মী বসেছিল।সেই সময় বিজেপি কর্মীরা হামলা চালায়।তৃণমূল কর্মী কালিপদ চৌধুরীকে সহ পাঁচজনকে বাঁশ ও টাঙি দিয়ে অাঘাত করে। গুরুতর মাথায় অাঘাত নিয়ে ভর্তি হন ক্ষীরপাই হাসপাতালে।মাথায় ছয়টি সেলাই হয়, ক্ষীরপাই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে অবস্থা খারাপ হওয়াই স্থানান্তর করে অাশঙ্কাজনক তৃণমূল কর্মী কালিপদ চৌধুরীকে ঘাটাল মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।এছাড়াও বাঁশ লাঠির অাঘাতে আহত হন শ্যামাপদ চৌধুরী,অশোক চৌধুরী, বিদেশ চৌধুরী,অরূপ চৌধুরী, তির্থপতি ঘোষ।তৃণমূলের অভিযোগ, বিজেপির কর্মীরা গতকাল তারা ঐ বুথে পার্টি অফিসে পতাকা তুলে এবং বুথ কমিটি গঠন করে।

আক্রমনে আহত।নিজস্ব চিত্র

কলকাতায় বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শা’র সভায় লোক যেতে না চাওয়াই বোম ফাটিয়ে তারপরই তারা হামলা করে তৃণমূল পার্টি অফিসে।বাঁশ লাঠি ও টাঙি দিয়ে তৃণমূল কর্মীদের অাঘাত করে। সুভাষ চৌধুরী (বিজেপির বুথ সভাপতি), বিদুৎ চৌধুরী, তপন চৌধুরী, সুমন চৌধুরী, সুদীপ চৌধুরী সহ চার থেকে পাঁচজন বিজেপি কর্মীর বিরুদ্ধে হামলা করার অভিযোগ উঠেছে। জেলা সভাপতি অজিত মাইতি জানান,বিজেপি হতাশাগ্রস্থ হয়ে রাতের অন্ধকারে এইসব ঘটনা ঘটাছে,তৃণমূল যদি একদিন ঘুরে দাঁড়াই এলাকায় বিজেপি থাকবেনা।এই অভিযোগ মানতে নারাজ বিজেপি।তারা জানিয়েছেন এর সাথে তাঁদের কোন সম্পর্ক নেই।চন্দ্রকোনা থানার পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে। গতকাল রাতেই দুজনকে অাটক করেছে পুলিশ।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here