দীর্ঘ পঁচিশ বছর পর বেকসুর খালাস সন্ত্রাসে অভিযুক্ত এগারো

0
99

ওয়েবডেস্কঃ

উপযুক্ত তথ্য প্রমাণের অভাবে দীর্ঘ ২৫ বছর পরে বেকসুর খালাস পেল ১১ মুসলিম। ১৯৯৪ সালের ২৮ শে মে সারা দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সন্দেহভাজন ১১ জন শিক্ষিত মুসলিম যুবককে সন্ত্রাসী ক্রিয়া-কলাপ ও সংহতিনাশক আইনের (Terrorist and Disruptive Activities ) আওতায় গ্রেপ্তার করা হয় । এদের মধ্যে ডাক্তার , ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ার সহ উচ্চ শিক্ষিত যুবকরা ছিলেন ।

আজ থেকে ২৫ বছর আগে ওই সময় তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছিল বাবরি মসজিদ ধ্বংসের প্রতিশোধে নিতে তারা সারা দেশে যুব সম্প্রদায়কে প্রভাবিত করেছিল ভুসাওয়াল আল জিহাদ নামক সন্ত্রাসী গ্রুপে যোগদেবার জন্য। ভারতীয় দণ্ডবিধির বিভিন্ন ধারায় এই ১১ জন যুবককে অভিযুক্ত করা হয়।ভারতীয় দণ্ডবিধির আইপিসি ১২০(বি) ও ১৫৩ ধারা সহ টাডা আইনের সেকশন ৩(৩)(৪)(৫) ও সেকশন ৪(১)(৪) ধারায় তাদের অভিযুক্ত করা হয় বলে সংবাদ সংস্থা দ্যা অয়ার সূত্রে জানা যায়।
টাডা মামলা সংক্রান্ত বিশিষ্ট নাসিক আদালতের বিচারপতি  এস সি খাতি টাডা আইনের নিয়ম লঙ্ঘনের কারণে ও উপযুক্ত তথ্য প্রমাণের অভাবে এই ১১ জনকে নির্দোষ ঘোষণা করে বেকসুর খালাস দিয়েছেন ।

আরও পড়ুনঃঅভিনন্দনের ফেরার মাঝেই কুপওয়াড়া এনকাউন্টারে শহীদ পাঁচ সুরক্ষা কর্মী 

এই ১১ জন হলেন জামিল আহমেদ আবদুল্লাহ খান, মোহাম্মদ ইউনূস মোহাম্মদ ইসহাক, ফারুক নাজির খান, ইউসুফ গুলাব খান, আয়ুব ইসমাইল খান, ওয়াসিমুদ্দিন শামসুদ্দিন, শাইখ শফী শেখ আজিজ, আশফাক সৈয়দ মুর্তুজা মীর, মুমতাজ সৈয়দ মুর্তুজা মীর, হারুন মোহাম্মদ বাফতি এবং মৌলানা আবদুল কাদের হাবিবী।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here