দেশের একমাত্র মহিলা মুখ্যমন্ত্রীর প্রকল্পে উপকৃতদের একটা বড় অংশই মহিলা, প্রশংসায় অমর্ত্যের ‘প্রতীচী’

0
24

ওয়েব ডেস্ক, নিউজ ফ্রন্টঃ

অমর্ত্য সেন পরিচালিত সর্বজনবিদিত সংস্থা ‘প্রতীচী ট্রাস্ট’, তাদের সমীক্ষার রিপোর্টে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দুটি প্রকল্প ‘দিদিকে বলো’ এবং ‘দুয়ারে সরকার’ রীতিমতো প্রশংসিত।

Amartya Sen
সৌজন্যেঃ দ্য স্টেটসম্যান

প্রতীচী ট্রাস্ট চলতি মাসেই তাদের এক সমীক্ষার রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। তাতে উল্লেখ করা হয়েছে ‘দিদিকে বলো’ প্রকল্পের মাধ্যমে রাজ্যের এক বিশাল সংখ্যক মানুষ তাঁদের অভাব অভিযোগ সরকারের কাছে তুলে ধরতে পেরেছেন, এবং ‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্পের মাধ্যমে রাজ্যের প্রায় পৌনে তিন কোটি মানুষ উপকৃত হয়েছেন। উল্লেখযোগ্য তথ্য হলো, এই প্রকল্প দুটির মাধ্যমে যত অভিযোগ জমা পড়েছিল, তার ৯৫ শতাংশ অভিযোগের সমাধান করা সম্ভব হয়েছে।প্রতীচী ট্রাস্টের রিপোর্ট অনুযায়ী, ‘দিদিকে বলো’ প্রকল্পের মাধ্যমে অনলাইনে আসা ১০ লক্ষেরও বেশি অভিযোগ নিয়ে কাজ করেছে সরকার।

২০১৯ সালের ২৯ জুলাই শুরু হয়েছিল ‘দিদিকে বলো’ প্রকল্প। রাজ্যের মানুষের সমস্যা একটি ফোন কলের মাধ্যমে সমাধান করতে এই কর্মসূচির সূচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু বিষয়টি আদতে ছিল মুখ্যমন্ত্রী নয়, বাংলার ঘরের মেয়ে ‘দিদি’র ভাবমূর্তিকে জনমানসে তুলে ধরা। এই প্রকল্প নিয়ে বিস্তর সমালোচনা হয়েছে বিভিন্ন মহলে কিন্তু কর্ণপাত করেননি মমতা।

আরও পড়ুনঃ করোনা সংক্রান্ত গ্লোবাল অ্যাডভাইজ়রি কমিটির বৈঠক ৫অগাস্ট, থাকবেন অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ও

প্রতীচীর রিপোর্ট অনুযায়ী ভোটের আগে আনা ‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্পেও যথেষ্ট উপকৃত হয়েছেন সাধারণ মানুষ। এক ছাতার তলায় খাদ্যসাথী, স্বাস্থ্যসাথী, শিক্ষাশ্রী, কন্যাশ্রী, রূপশ্রী, ঐক্যশ্রী, জাতিগত শংসাপত্র, তফসিলি বন্ধু, জয় জোহার, কৃষকবন্ধু এবং ১০০ দিনের কাজ— এই সবকটি প্রকল্পের সুবিধাই মিলেছে ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচির ক্যাম্প থেকে। এমনকি সরকারি এইসমস্ত প্রকল্পের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ থাকলেও তা এই ক্যাম্পগুলিতে নথিভুক্ত করার ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুনঃ সিবিআই প্রধান থেকে দলাই লামা ঘনিষ্ঠরা এমনকি অনিল আম্বানিও, নজরদারির নিশানায় সকলেই

প্রতীচীর সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে সরকারি প্রকল্পগুলির মাধ্যমে ৪৫ শতাংশ মহিলারা তাঁদের অভাব অভিযোগ জানিয়েছেন। যেসমস্ত অভিযোগ এই প্রকল্পের ক্যাম্পগুলিতে জমা পড়েছিল তা বিশ্লেষণ করে দেখা যায় মূলত কন্যাশ্রী, রূপশ্রী এবং বিধবাদের পেনশন- মহিলাদের জন্য সরকারি এই প্রকল্পগুলিতে ভাল সাড়া মিলেছে। আমফান এবং কোভিড সংক্রান্ত যেসব অভিযোগ জমা পড়েছিল, তার মধ্যে একটা বড় অংশের অভিযোগ ওঠে এসেছিল মহিলাদের মধ্যে থেকেই।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here