সেই কৃষ্ণলীলাতেই জয়ের হ্যাটট্রিক করল সবুজ মেরুন ব্রিগেড

0
26

অঞ্জন চট্টোপাধ্যায়, স্পোর্টস ডেস্কঃ

মনে হচ্ছিল এই ম্যাচে সম্ভব হল না জয়ের হাটট্রিক অধরা থাকল এটিকে -মোহনবাগানের কিন্ত শেষ মুহূর্তের অতিরিক্ত সময়ে কৃষ্ণ লীলায় কেল্লা ফতে ওড়িশা এফসিকে হারিয়ে জয়ের হ্যাটট্রিক করে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ স্থানে চলে এল সবুজ মেরুন ব্রিগেড।

ATK Mohunbagan | newsfront.co

কেরালা ব্লাস্টার্স এবং ইস্টবেঙ্গলকে টানা দু’ম্যাচ হারানোর পর হাবাসের এটিকে মোহনবাগান প্রায় আটকে গিয়েছিল ব্যাক্সটারের ওড়িশা এফসির কাছে। এদিন একাধিক সুযোগ পেয়েও দুই দল স্কোর করতে এদিন ব্যর্থ হয়েছিল প্রথমার্ধে। তবে মোহনবাগান ডিফেন্সকে এদিন খুব ভালো লাগলো সন্দেশকে অনেক খোলামেলা লাগল।

আরও পড়ুনঃ ২৪ ডিসেম্বর বিসিসিআইয়ের বার্ষিক সাধারণ সভা

তিরি, সন্দেশ এবং প্রীতম কোটালকে নিয়ে গড়া এটিকে এমবি-র রক্ষণ এবারে টুর্নামেন্টের অন্যতম সেরা। আর রয় কৃষ্ণের মত সুযোগসন্ধানী বক্স স্ট্রাইকারকে ব্রাজিলের রোনাল্ডো মনে হচ্ছে বক্সে বল পেলেই গোল করছেন। এরপর প্রতি আক্রমণভিত্তিক ফুটবলেই বিপক্ষকে চূর্ণ করে হাবাসের দল। ওড়িশার বিরুদ্ধে এদিন হাবাসের সমস্ত পরিকল্পনাই প্রায় আটকে গিয়েছিল।

আরও পড়ুনঃ মারাদোনাকে সম্মান জানিয়ে জরিমানা মেসির

তবে বল পজিশনে সারাক্ষণ এগিয়ে থাকল এটিকেএমবি। তবে ওড়িশার রক্ষণ ভেদ করতে ব্যর্থ। প্রথমার্ধের ৩৫ মিনিটে সুবর্ণ সুযোগ পেয়েছিলেন ওড়িশার জেকব। দিয়েগো মৌরিসিওর বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে কর্নার পায় ওড়িশা। কর্নার থেকে দারুণ সুযোগ পেয়েছিলেন জেকব। তবে তিনি লক্ষ্যভেদ করতে পারেননি। বিরতির পরেই পেনাল্টি পেতে পারত এটিকেএমবি। বক্সে প্রবীর দাসকে ফাউল করেন হেন্দ্রি। ফাউল অবশ্য কাজে লাগাতে পারেননি এটিকে।

হাবাস জোড়া পরিবর্তন করেন ৬৬ মিনিটে জয়েশ রানে এবং মনবীরকে তুলে নামিয়ে দেন গ্লেন মার্টিন্স এবং ব্রেডেন ইনমানকে। খেলা যখন শেষের দিকে ড্র যখন একমাত্র সময়ের অপেক্ষা ঠিক তখনই অতিরিক্ত সময়ে বক্সে সন্দেশের হেডের ক্রসে হেড থেকে গোল করেন রয় কৃষ্ণ আর কৃষ্ণর বাঁশিতেই হাবাসের মুখে হাসি।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here