“ভোট এলেই গঙ্গা স্নান…”, গোয়ার মাটিতে দাঁড়িয়ে একাধিক ইস্যুতে মোদীকে কটাক্ষ মমতার

0
66

শরীয়তুল্লাহ সোহন, ওয়েব ডেস্কঃ

বহু কর্মসূচি মাথায় নিয়ে দুই দিনের জন্য গোয়া সফরে গিয়েছেন বাংলার মূখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেসের কর্ণধার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপি সরকার পরিচালিত দেশের সবচেয়ে ছোট রাজ্যে গোয়া। কিছুদিন পরেই বিধানসভা ভোট। তাই স্বভাবতই ভেবেছিলেন তিনি সেখানে গিয়ে বিজেপিকে বিঁধে কথা বলবেন। বাস্তবে সেটা হলো। মঙ্গলবার আরব সাগরের তীরে পানাজির এক জনসভায় গেরুয়া শিবিরকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন তিনি।

Mamata Modi
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-নরেন্দ্র মোদি

পানাজির জনসভায় দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, “গোয়ায় জোট করছি, তাই ভয় পেয়েছে বিজেপি। গোয়ার মানুষ গোয়া শাসন করবে। আমার প্রথম পরিচয় মানুষ, বিজেপির কাছে সার্টিফিকেট চাই না।” এরপরই দেশে চলমান বিভিন্ন ইস্যু তুলে বিজেপি সরকারকে নানাভাবে আক্রমণ করেন। তার মধ্যে বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য, লখিমপুরে কৃষক মৃত্যু এবং দেশজুড়ে অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধি।

বিশেষভাবে উল্লেখ্য, সম্প্রতি দেশের প্রধানমন্ত্রী দুই দিনের জন্যে বারাণসী সফরে গিয়েছেন। সেখানে তিনি গঙ্গা স্নান সেরে কাশী বিশ্বনাথ ধাম করিডর উদ্বোধন করেন। কাশী বিশ্বনাথ করিডরে ৪০ টি মন্দির সংস্কার ও ২৩ টি ভবন তৈরি হয়েছে কাশীতে। সোমবার প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে সেজে উঠেছিল মন্দির ঘাট। মোদি ললিতা ঘাটে গঙ্গা স্নান করে পবিত্র জল সংগ্রহ করেন। লাল বস্ত্র পরিধান করে সূর্য প্রণাম করেন। আর এই বিষয়টিকে কেন্দ্র করে তীব্র কটাক্ষে মেতে উঠেন বাংলার মূখ্যমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর নাম করে তিনি বলেন, “ভোট আসলেই উনি গঙ্গায় ডুব দেন। আর ভোট শেষ হলেই গঙ্গা অপবিত্র করেন। শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে দেন না, কোভিড মৃতদের গঙ্গায় ভাসিয়ে জল দূষিত করে তুলে।”

আরও পড়ুনঃ সুপ্রিম কোর্টের হস্তক্ষেপে অবশেষে আইনি জটিলতা কাটল চারধাম প্রকল্পের, কাজ শুরু হবে শীঘ্রই

এরপর আরও একধাপ এগিয়ে বলেন, “দুর্গাপূজায় আমার সরকার প্রতিটি ক্লাবকে ৫০ হাজার টাকা করে দেয়। বিজেপি তা পেরেছে? ভোট আসলেই ওরা ধর্মীয় ভেদাভেদ করে, গঙ্গা স্নানের নাটক করে।” মূল্যবৃদ্ধি নিয়েও সুর চড়ান তিনি। মূল্যবৃদ্ধির প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ‘দেশজুড়ে কি করছে বিজেপি সরকার? পেট্রোল, ডিজেলের কত দাম বাড়িয়েছে?’

আরও পড়ুনঃ লখিমপুর খেরী কান্ডে নয়া মোড়! তদন্তকারী দলের রিপোর্টে চাপে অভিযুক্ত আশিস মিশ্র সহ অন্যরা

এরপর লখিমপুর কৃষক হত্যার প্রসঙ্গ তুলে বিজেপি সরকারকে আক্রমণ করেন মমতা। তিনি বলেন, “আদালতে তদন্তকারী দল সিট স্পষ্ট জানিয়েছেন, ‘এটি পূর্ব পরিকল্পনা মাফিক খুন’। তবুও কেন্দ্রীয় সরকার এটাকে নিয়ে ছেলেখেলা করেছেন।” যোগী আদিত্যনাথকে আক্রমণ করে বলেন, “উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ইস্তফা দেওয়া উচিত। এ নিয়ে অবিলম্বে প্রধানমন্ত্রীর কথা বলা উচিত।” এরপর তিনি বিজেপি বিরোধীদের উদ্দেশ্যে বলেন, “যারা বলছেন বিজেপিকে হারাবো, তারা দয়া করে ভোট ভাগাভাগি করবেন না।”

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here