যাত্রাপালা থেকে প্রতিযোগিতা,রাস ঘিরে উন্মাদনা সুলতানবাগে

0
65

সিমা পুরকাইত,দক্ষিণ ২৪ পরগনাঃ

competition from jatrapala
নিজস্ব চিত্র
competition from jatrapala
নিজস্ব চিত্র
competition from jatrapala
নিজস্ব চিত্র

রাস উৎসবে মাতোয়ারা ডায়মন্ড হারবারে প্রত্যন্ত এলাকা সুলতানবাগ।সুন্দরবন লাগোয়া গ্রাম সুলতানবাগ।এক সময় এখানকার জঙ্গলে হিংস্র প্রানীরা বাস করত এখানে।যুগের পরির্বতনে জঙ্গল সরে গিয়ে শুরু হয় মানুষের বসবাস।এলাকার পরিচিতি নিয়ে সমস্যায় ছিলেন এই গ্রামের বাসিন্দার।যার বিকাশ ঘটে চার বছর আগে থেকে।এলাকা পরিচিতির পাশাপাশি গ্রামের মঙ্গল কামনায় রাস উৎসব শুরু করেন সুলতানবাগ গ্রামের মানুষ।ডায়মন্ড হারবার১ নং ব্লকের নেতড়া অঞ্চলে কুড়িটি গ্রামের মানুষ মেতে থাকেন এই রাস উৎসব ঘিরে।বারো মাসে তেরো পার্বনে অন্যান্যদের মতো রীতি পালন করেন এই এলাকাবাসি।কিন্তু রাসপূর্নিমায় এই দশদিনে উৎসব মুখর হয়ে ওঠেন সুলতানবাগের প্রায় তিনহাজার গ্রামবাসী।রাস পূর্নিমার দিন থেকে রীতি অনুযায়ী পূজা শুরু হলেও।চলতি বছরে কিছুদিন পর থেকে শুরু হয় রাসকে কেন্দ্র করে মেলা।চার বছরে পরা সুলতানবাগ রাসে রস মঞ্চে শিবদূর্গা রাধাকৃষ্ণ আর সখীদের রাস লীলা তুলে ধরেছেন দর্শনার্থীদের সামনে এখানকার উদ্যোক্তারা।দক্ষিন ২৪ পরগনার মগরাহাট হোক কিংবা কুল্পির রাস উৎসব হোক,ডায়মন্ড হারবারের সুলতানবাগ রাস উৎসব একটু ভিন্ন রকমের।রাস উৎসবে এবারে ঠাঁই পেয়েছে হিন্দুদের তেত্রিশ কোটি দেবতাদের মধ্যে একশো দশ দেবদেবীর মূর্তি।কোথাও তারাপিঠের কালী। কোথাও আবার জগন্নাথ সুভদ্রা বলরাম।গোপালের ননীচুরি থেকে শিব দূর্গার যুগল বন্দীর দৃশ্য।ত্রেতা যুগের রাম লীলা থেকে কলিযুগের কালিয়া দমনের দৃশ্য তুলে ধরেছেন দর্শনার্থীদের সামনে।সাবিত্রী সত্যবান থেকে মহাভারতের অজুর্ন । এছাড়া শনি ঠাকুর, কার্তীক,লক্ষ্মী ঠাকুর রাখা হয়েছে রাস উৎসবে।রাখা হয়েছে রামভক্ত হনুমানের মূর্তি।নেতড়া অঞ্চলে প্রায় পঁচিশ হাজার মানুষের বাস।সুলতান বাগের তিন হাজার মানুষের জীবিকা বলতে চাষ আবাদ,দর্জি কারবারি,কেউবা অন্যান্য কুটির শিল্পের সঙ্গে যুক্ত।খেটে খাওয়া মানুষের হাতে হাত আর কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে উৎসব মুখর হয়ে ওঠেন রাস পূর্ণিমার এই কয়েক দিন।গ্রামে অমঙ্গলের ছায়া যাতে না পরে,তার জন্য রাস পূর্নিমায় অন্যন্য দেব দেবির পূজা অর্চনা করেন গ্রামবাসিরা।এই উৎসবকে কেন্দ্র করে নানান সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করেন এই এলাকার প্রবীন ও নবীন উদ্যোক্তারা।বাউল গান থেকে হরিনাম সংকীর্তন।যাত্রা পালা থেকে তরজা গানের লড়াই।পুতুল নাচের মতো হারিয়ে যাওয়া কৃষ্টি নিয়ে মেতেছে এলাকাবাসী। এবারে সুলতানবাগ রাস উৎসবে হিন্দু বনদেবীর যাত্রা পালায় অভিনয় করবেন মুসলিম মেয়েরা। সম্প্রদায় সম্প্রীতি অখুন্ন রাখতে হিন্দু মুসলিম একত্রিত ভাবে উৎসব মুখর হয়ে ওঠেন সুলতানবাগ রাস উৎসবে।জয়ন্ত ঘোষ প্রবীন উদ্যোক্তা বলেন গ্রামের প্রবীন নবীনদের নিয়ে নিয়ে চলে শঙখ ধ্বনি ,মোমবাতি জ্বালানো প্রতিযোগিতা। চলে ছদ্মবেশী প্রতিযোগিতা।সবচেয়ে বেশি দায়িত্ব পরে গ্রামের মহিলাদের উপর।তরুণ কৌশিক ঘোষ বলেন,শুধু নেতড়া অঞ্চলের মানুষ নয় তালডাঙ্গা মশাট ডায়মন্ড হারবার আমতলা মন্দিরবাজার উস্থি হটুগঞ্জ এলাকার মানুষ আসেন রাস উৎসব দেখতে।প্রতিটি বাড়িতে আত্মীয় সমাগমে মেতে থাকেন সুলতানবাগ এলাকাবাসী।এলাকার পরিচিতির বিকাশ ঘটাতে।

competition from jatrapala
নিজস্ব চিত্র
competition from jatrapala
জয়ন্ত ঘোষ,উদ্যোক্তা।নিজস্ব চিত্র
competition from jatrapala
কৌশিক ঘোষ,উদ্যোক্তা।নিজস্ব চিত্র

আরও পড়ুনঃ নাবালিকাকে যৌন হেনস্থার অভিযোগ

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485