বলাগড়ের বিধায়ক মনোরঞ্জন ব্যাপারী কি দলের প্রতি হতাশ? ফেসবুক পোস্ট ঘিরে জল্পনা

0
67

নিজস্ব প্রতিবেদন, নিউজ ফ্রন্টঃ

হুগলি জেলার বলাগড় বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল বিধায়ক মনোরঞ্জন ব্যাপারী, বেশ কিছুদিন ধরেই এমন কিছু কথা সোশ্যাল মিডিয়াতে লিখছেন যা দেখে মনেই হচ্ছে বোধহয় সক্রিয় রাজনীতিতে মোহভঙ্গ ঘটেছে তাঁর।

Manoranjan Bapari | newsfront.co
ছবি: ফেসবুক

সেকথা সরাসরি নিজের ফেসবুক পোস্টে কিছুদিন আগে লিখেওছিলেন। কিছুদিন আগে নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে মনোরঞ্জন বাবু লেখেন, “মনে হচ্ছে রাজনীতিতে এসে ভুল করেছি”। তাঁর এই পোস্ট নিয়ে তুমুল আলোচনা সমালোচনার ঝড় বয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায় এমনকি তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্বও এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানায়। এই পরিস্থিতিতে বেশ কিছুদিন সোশ্যাল মিডিয়া থেকে বিরতি নেন বিধায়ক।

Manoranjan Bapari Facebook Post
ছবি সৌজন্যেঃ ফেসবুক

এরপর আবার ধীরে ধীরে ফিরেও এসেছেন সোশ্যাল মিডিয়ার টানে। আজ রবিবার আবার তাঁর একটি বিতর্কিত ফেসবুক পোস্ট ঘিরে শুরু হয়েছে জল্পনা । আজকের পোস্টে তিনি আবার বিস্ফোরক, লিখেছেন : “সুপ্রভাত বন্ধুরা। আজ আপনাদের একটা ভালো খবর শোনাব। এই যে আমি আপনাদের মনা ভাই মনা দা , এক সময় আমি সতেরো পয়সা দামের একটা পাউরুটির জন্য কত হাহাকার করেছি সেই আমি আজকাল অনেক জনের ভাত তো তুচ্ছ , মাংস মদের পর্যন্ত জোগান দিতে পারছি ভেবে পুলকিত হচ্ছি।

আমি কেন অমানবিক উচ্চারণ করতে পারিনি, আমি কেন খইনি খাই, আমি কেন সুখ শয্যায় না শুয়ে গামছা বিছিয়ে আমগাছের ছায়ায় শুয়ে পড়েছি,আমি কেন দামি হোটেলে না খেয়ে মা ক্যান্টিনে লাইন দিয়ে “দিম্ভাত” খাই , এই সব নিয়ে খবর করে কিছু জন আজকাল বেশ তেলে ঝোলে থাকছে।

আমি ভেবে পাইনা মানুষের কত সমস্যা সে গুলো কী এদের চোখে পড়ে না? পেট্রল ডিজেলের দাম আকাশ ছুতে চলেছে ,যার ফলে সমস্ত জিনিসের দাম বাড়ছে,প্রায় আট মাস রোদ শীত বৃষ্টি উপেক্ষা করে লক্ষ লক্ষ অন্নদাতা কৃষক দিল্লির রাস্তায় বসে আছে সে নিয়ে সংবাদ মাধ্যম নীরব । সময় নেই এদের সে দিকে চোখ ফেরাবার। এরা ক্যামেরা নিয়ে ঘুরছে আমি কখন কার কাছে হাত পেতে খৈনি চেয়ে নেবো তেমন ছবি তোলবার চেষ্টায়। সাবাস,এই তো চাই।চালিয়ে যাও ভাই।এই ভাবে “একদিন ক্রমমুক্তি” হবে ।”

(বানান অপরিবর্তিত রাখা হলো)

আরও পড়ুনঃ পেগাস্যাস কাণ্ডে অভিষেকের ছবি দিয়ে প্রতিবাদ কংগ্রেসের, নতুন রাজনৈতিক সমীকরণের জল্পনা

এই পোস্টের পর থেকেই শুরু হয়েছে জল্পনা,মনোরঞ্জন বাবু ঠিক কাকে উদ্দেশ্য করে এতগুলো কথা লিখলেন! সংবাদ মাধ্যমের একাংশর ওপর যে তিনি প্রবল চটেছেন তা তাঁর পোস্ট থেকেই স্পষ্ট। কিন্তু ‘অমানবিক’ শব্দটি উচ্চারণ না করতে পারার ফলে মনোরঞ্জন বাবু যথেষ্ট ‘ট্রোলড’ হয়েছিলেন বামমনস্ক বহু নেট জনতার কাছে। মনে করা হচ্ছে এই ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে তাদেরও বিঁধলেন মনোরঞ্জন বাবু। কিন্তু মূল ‘টার্গেট’ কি তাঁর দল? থেকে গেল প্রশ্ন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here