ভোটের নামে প্রহসন হয়েছে, আগরতলায় প্রতিটি ওয়ার্ডে পুনঃনির্বাচনের দাবি সিপিআইএম-এর

0
9

শুভশ্রী মৈত্র, ওয়েব ডেস্কঃ

বৃহস্পতিবার ত্রিপুরায় পুরভোটের সবটাই প্রহসন হয়েছে, আগরতলায় প্রতিটি ওয়ার্ডে নতুন করে ভোটগ্রহণের দাবিতে সোচ্চার সে রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল সিপিআইএম। সিপিআইএম-এর অভিযোগের তির সম্পূর্ণ ভাবে ত্রিপুরার বিজেপি শাসিত সরকারের দিকে।

Agartala Police

নিয়ম থাকা সত্ত্বেও দলের পোলিং এজেন্টদের বুথে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। এমনকি, বুথের ভিতরে সাংবাদিকদের ঢুকতেও বাধা দেওয়া হয়েছে এমনটাই অভিযোগ সিপিএম নেতৃত্বের। তাঁদের দাবি, অভিযোগ জানাতে তাঁরা বারে বারে ফোন পুলিশ এবং রাজ্য নির্বাচন কমিশনে কিন্তু কোন ফোনই ধরেননি কেউ।

সিপিআইএমের রাজ্য সম্পাদক জিতেন্দ্র চৌধুরী এদিন বলেন, ‘‘রাজ্যের বিজেপি সরকার পুরভোটে দিনদুপুরে গণতন্ত্রের অমাবস্যা নামিয়ে এনেছে। ভোটের মতো একটি গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে ধ্বংস করেছে ওরা।’’

আরও পড়ুনঃ ত্রিপুরার পু্রভোটের হিংসা রুখতে আরও দুই কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েনের নির্দেশ শীর্ষ আদালতের

জিতেন্দ্র চৌধুরী জানিয়েছেন যে, বুধবার রাতেই তিনি সুপ্রিম কোর্টের কাছে একটি আর্জি জানিয়েছিলেন। এদিন সেই মামলার শুনানিও ছিল। শুনানি শুরুর আগেই ভোটগ্রহণ পর্ব শুরু হয়ে যায়। শুনানি চলাকালীন দু’টি নির্দেশ দেয় শীর্ষ আদালত। আদালত বলে, বৈধ অনুমতিপত্র থাকা সমস্ত সাংবাদিককে বুথে ঢুকতে দিতে হবে। এবং পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে। কিন্তু কার্যক্ষেত্রে দুটি নির্দেশের কোনটিই মানা হয়নি।

আরও পড়ুনঃ মেঘালয়ের কংগ্রেসে বড় ভাঙন, ১২ জন বিধায়ক দলত্যাগ করে যোগ দিলেন তৃণমূলে

অন্যদিকে, সিপিআইএমের সমস্ত অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে বিজেপি। এদিন সমস্ত বুথে স্বাভাবিক ভাবেই ভোটগ্রহণ হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাজ্যের মন্ত্রী রতনলাল নাগ। সিপিআইএম কর্মীদের বিরুদ্ধেই বিজেপি কর্মীদের মারধরের অভিযোগ তুলেছেন তিনি।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here