ভিক্ষে, চুরি করে হলেও অক্সিজেনের জোগান দিন, হাইকোর্টের তিরস্কার মোদি সরকারকে

0
108

নিজস্ব সংবাদদাতা, ওয়েব ডেস্কঃ

দেশজুড়ে অক্সিজেনের হাহাকার হাসপাতালগুলিতে, দিল্লি হাইকোর্টের তীব্র ভর্ৎসনার মুখে মোদি সরকার।বুধবার দুপুর থেকেই দিল্লির বহু হাসপাতালে দেখা দেয় অক্সিজেনের ঘাটতি। সন্ধ্যায় দিল্লির পটপরগঞ্জের ম্যাক্স হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দ্বারস্থ হয় দিল্লি হাই কোর্টের, তাঁরা জানান আর মাত্র তিন ঘণ্টার অক্সিজেন রয়েছে তাঁদের কাছে, এদিকে হাসপাতালে ভর্তি থাকা ৪০০ রোগীর মধ্যে ২৬২ জনের জীবন বিপন্ন।

delhi hc | newsfront.co

এরপরেই হাইকোর্ট তীব্র ভাষায় তিরস্কার করে মোদি সরকারকে। আদালত বলে, দিল্লি সহ বহু রাজ্যে অক্সিজেনের জন্য হাহাকার। কেন্দ্রকে মনে করিয়ে দেওয়া হচ্ছে মানুষের জীবন বিপন্ন, যা রক্ষা করা কেন্দ্রের দায়িত্ব। যেভাবে হোক অক্সিজেনের যোগান দিতে বাধ্য কেন্দ্রীয় সরকার। বিশেষ করিডর করে সড়কপথে আনুন বা বিশেষ বিমানে অক্সিজেন জোগাড় করতেই হবে কেন্দ্রকে।

দিল্লিতে অক্সিজেনের আকাল ওদিকে অন্য রাজ্যে দিল্লির বরাদ্দ অক্সিজেন পাঠিয়ে দিচ্ছে কেন্দ্র, এই অভিযোগ প্রসঙ্গে গত কালই দিল্লি হাই কোর্টের বিচারপতি বিপিন সাঙ্ঘি এবং বিচারপতি রেখা পাল্লি বলেছিলেন, ‘‘যাঁরা এই কাজ করছেন, তাঁদের হাতে রক্তের দাগ লেগে থাকবে।’’ এরপরে ম্যাক্স হাসপাতালের মামলার পর রাতে জরুরিভিত্তিতে আদালত বসে ও শুনানি হয়।

আরও পড়ুনঃ  রাজ্যগুলির চাইতে অর্ধেকেরও কম দামে ভ্যাকসিন পাবে কেন্দ্র! মোদিকে তোপ বিরোধীদের

বিচারক কেন্দ্রকে আবার বলেন যে অভাব অন্য হাসপাতালেও রয়েছে একটি হাসপাতাল অনন্যোপায় হয়ে আদালতে এসেছে। কেন কেন্দ্র আগে এই বিষয়ে প্রস্তুতি নেয়নি? বিচারপতিরা বলেন, ” আমরা হতবাক যে দেধের নির্বাচিত সরকারের কাছে মানুষের জীবন গুরুত্বহীন! সরকার অক্সিজেনের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে চিন্তিত নয়!” আদালতের প্রশ্ন অক্সিজেনের যোগান একেবারে বন্ধ হয়ে গেলে কি পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে সে বিষয়ে কি কেন্দ্রের আদৌ কোন ধারণা আছে!

দুদিন আগে কেন্দ্র জানিয়েছিল, ইস্পাত ও পেট্রো রসায়ন বাদে অন্য যেকোন শিল্প ক্ষেত্রে অক্সিজেনের যোগান আপাতত বন্ধ রেখেছে সরকার। এছাড়াও যেসব ইস্পাত শিল্পের নিজস্ব অক্সিজেন প্ল্যান্ট আছে, তাদের এখন অক্সিজেন সাপ্লাইও করা হবে না। আজ আদালত প্রশ্ন করেন, ” সেক্ষেত্রে সরকার কেন ওই ইস্পাত শিল্পের প্ল্যান্ট থেকে অক্সিজেন নিচ্ছে না সরকার। সরকারের ঘুম ভাঙবে কবে!”

দিল্লি হাইকোর্ট নির্দেশ দিয়েছে সমস্ত ইস্পাত ও পেট্রোপণ্যের প্ল্যান্ট থেকে অক্সিজেন পাঠাতে হবে হাসপাতালে, প্রয়োজনে তারা উৎপাদন বন্ধ রেখে অক্সিজেন যোগান দেবে হাসপাতালে।কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন আশ্বাস দিয়েছিলেন বিদেশ থেকে আমদানি করে , ২৪ ঘন্টা উৎপাদন করে হলেও অক্সিজেন যোগান দেওয়া হবে। রাতে আদালত জানতে চায় সে আশ্বাসের কি হলো!কেন্দ্র জানায় আমদানির জন্য কয়েকটি দরপত্রে পজিটিভ সাড়া পাওয়া গিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ অক্সিজেন ঘাটতি নিয়ে দিল্লি হাইকোর্টের তিরস্কারের মুখে কেন্দ্রীয় সরকার

আদালত ফের বলে যে, বিদেশ থেকে অক্সিজেন আমদানি করতে হচ্ছে অথচ দেশের ইস্পাত প্ল্যান্টগুলি নিজেদের প্রয়োজনে তৈরি অক্সিজেন দিতে পারছেনা! টাটা যদি পারে অন্যরা কেন পারবে না? কেন্দ্র আদালতকে অনুরোধ জানায় যে কিছু নির্দেশ তা যেন বৃহস্পতিবার জারি করা হয়। আদালত জানতে চায় , তার মধ্যে মানুষ অক্সিজেনের অভাবে মারা গেলে কি কেন্দ্র দায় নেবে?

কেন্দ্রের আবেদন নস্যাৎ করে আধ ঘন্টা বিরতির পর ফের শুনানি শুরু করে আদালত।আদালত জানিয়েছে এই মামলার শুনানি আবার হবে বৃহস্পতিবার, যাবতীয় বিষয় আজ কেন্দ্রকেও স্পষ্ট করে উত্তর দিতে হবে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here