করোনা আবহে এবার ঘট পুজোর মাধ্যমে চারশো বছরের প্রাচীনপুজো

0
16

নিজস্ব সংবাদদাতা,আলিপুরদুয়ারঃ

করোনা আবহে চারশো বছরের প্রাচীন বারোবিশার রাধানগর গ্রামে সরকার বাড়ির দুর্গাপুজো এবার সম্পন্ন হবে ঘট পুজোর মাধ্যমে । প্রতি বছর রথের দিন সরকার বাড়ির স্থায়ী মন্দিরে কাঠামো পুজো করে দুর্গাপুজোর সূচনা করা হয় । জানা গিয়েছে, এক চালায় দুর্গা প্রতিমা গড়ে তোলা হয়।

mandapa | newsfront.co
সরকার বাড়ির পুজো মন্ডপ ৷ নিজস্ব চিত্র

সরকার বংশের নির্দিষ্ট কুল পুরোহিতের বংশধর জ্যোতিষ চক্রবর্তীকে এবছর ঘট পুজো করার জন্য ডাকা হবে।কুমারগ্রাম ব্লকের ভল্কা-বারোবিশা ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীনে থাকা রাধানগর গ্রামের সরকার বাড়ির দুর্গা পুজোর আয়োজনে জন্য কর্মকর্তারা প্রস্তুতি নিয়েছে। তবে প্রতিমা তৈরি করা হচ্ছেনা। করোনা পরিস্থিতির জন্য এবছর মন্দিরে শুধুমাত্র মাটির ঘট বসিয়েই পুজো করা হবে।

আরও পড়ুনঃ শারোদৎসবে ঘটেই পূজিতা হন মা ঝিংলেশ্বরী

সরকার পরিবারের কাছে এই পুজোর বয়সের সঠিক হিসেব না থাকলেও বর্তমান সরকার পরিবারের কর্তা সুকুমার রঞ্জন সরকার জানান, “এই পুজো এবছর ৪০৬ বছরে পা দিয়েছে।আজ থেকে প্রায় চারশো বছর আগে অবিভক্ত বাংলার ময়মনসিংহ জেলার সিংহেশ্বর গ্রামে সরকার পরিবারের প্রথম পুরুষ সূর্য নারায়ণ সরকার এই দুর্গাপুজোর সূচনা করেছিলেন। তারপর বাংলা ১৩৬২ সালে বাংলাদেশের ভিটেমাটি ছেড়ে সরকার পরিবার কিছুদিনের জন্য অসমে চলে আসে। তারপর পরিবারটি বারোবিশার রাধানগর গ্রামে চলে এসে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করে। পুরোনো রীতি মেনে ষষ্ঠীর দিন মায়ের সাথে শিবের পুজো করা হয়।”

কিন্তু এবছর করোনার কারণে শুধুমাত্র ঘট পুজো করেই সম্পন্ন হবে আনুষ্ঠান। তাই স্বভাবতই মন খারাপ পরিবারের সকলের।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485