পুজোয় সরকারি অনুদান, মুখ্যমন্ত্রীর সিদ্ধান্তকে সমর্থন নোবেলজয়ীর

0
46

শুভম বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতাঃ

কোভিড মহামারী পরিস্থিতিতে যেখানে রাজ্য সরকার স্বাস্থ্যব্যবস্থা সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে, সেখানে পুজো কমিটিগুলিকে ৫০ হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন অনেকেই। কিন্তু পুজোর অনুদান নিয়ে মমতা সরকারের পাশেই দাঁড়ালেন নোবেলজয়ী বাঙালি অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়।

Avijit Vinayak Banerjee | newsfront.co
অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়

করোনা পরিস্থিতিতে প্রয়োজনীয় সুরক্ষাবিধি মেনে চলার জন্য এই অনুদান পুজো উদ্যোক্তাদের জন্য জরুরি বলে মন্তব্য করেছেন নোবেলজয়ী বাঙালি অর্থনীতিবিদ।

প্রসঙ্গত, করোনা কালে দেশের অর্থনীতির ব্যাপক পতনে আগের মত বাজেটে পুজো অনেকেই করতে পারছেন না। একদিকে যেমন চাঁদা কম উঠেছে, তেমনই অন্যদিকে স্পনসরশিপেরও জোগাড় প্রায় হয়নি। কিন্তু পুজো কমিটিগুলিকে মনে করে ৫০ হাজার টাকা অনুদান দেওয়ায় অনেকেই ভোট রাজনীতির দাবি করেছিলেন।

আরও পড়ুনঃ রায়ে বদল হল সামান্য, দর্শকশূণ্য পুজো মন্ডপের নির্দেশ বহাল কলকাতা হাইকোর্টের

আদালতে এ নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় মাস্ক স্যানিটাইজার কেনার কথাই বলেছিল রাজ্য।করোনা-কালে এবার বাংলার ৩৬ হাজার ৯৪৬টি পুজোকে ৫০ হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুনঃ পুজোর শুরুতেই গাড়ির চাকা ফেটে দুর্ঘটনায় অর্জুন সিংয়ের কনভয়

একটি বহুল প্রচারিত বাংলা বৈদ্যুতিন সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নোবেলজয়ী বলেছেন, ‘‘এটা খারাপ সিদ্ধান্ত নয়। করোনায় সুরক্ষাবিধি মেনে চলার জন্য অতিরিক্ত খরচ হবে। কম বাজেটে পুজো করতেই যেখানে উদ্যোক্তারা হিমশিম খাচ্ছেন, সেখানে মাস্ক স্যানিটাইজার কেনার জন্য এই অনুদানের সিদ্ধান্ত মোটেই খারাপ নয়।’

অন্যদিকে, হাইকোর্টের নির্দেশমতো অনুদান ৭৫ শতাংশ টাকায় মাস্ক স্যানিটাইজার কিনেও হাইকোর্টের সোমবারের রায়ের পর রীতিমত বিভ্রান্তিতে পুজো কমিটিগুলি। দর্শকবিহীন মণ্ডপ হলে কেনা এই বিপুল মাস্ক স্যানিটাইজার আদৌ কাজে আসবে কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠে গিয়েছে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here