কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়া ভোট করাতে নারাজ ভোটকর্মীরা

0
138

পিয়া গুপ্তা,উত্তর দিনাজপুরঃ

Election workers demand for central forces
নিজস্ব চিত্র

প্রতিটি বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী না দিলে ভোটের প্রশিক্ষন নিতে নারাজ জেলার বেশকিছু ভোট কর্মী।আগে প্রশাসনকে বুথে বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী দেওয়া নিশ্চিত করতে হবে তবেই তারা ভোটের প্রশিক্ষন নেবেন।আজ রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের বিভিন্ন স্কুলে ভোটকর্মীদের প্রশিক্ষন দেওয়া নিয়ে বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়।নির্বাচন আধিকারিকেরা প্রশিক্ষন কেন্দ্রে এসে ভোটকর্মীদের প্রশিক্ষন নিতে যাওয়ার জন্য ঘরে যেতে বললে তাদের ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে ভোটকর্মীরা। বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনে ভোটগ্রহন করাতে গিয়ে রাজকুমার রায় নামে এক শিক্ষক তথা বুথের প্রিসাইডিং অফিসারের মৃত্যুর ঘটনার আতঙ্কে এবছর লোকসভা ভোটের প্রশিক্ষন নিতে নারাজ ভোটকর্মীদের একাংশ। কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়া ভোটে অংশগ্রহন করবেননা বলে আজ উত্তর দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন স্কুলে ভোট প্রশিক্ষন কেন্দ্রে বিক্ষোভ দেখান ভোটকর্মীরা।ভোটকর্মীদের আন্দোলনের জেরে কার্যত আজ জেলার বিভিন্ন স্কুলে চলা ভোটকর্মীদের প্রশিক্ষন বন্ধ হয়ে যায়।

Election workers demand for central forces
প্রিয়রঞ্জন পাল ( আন্দোলনরত ভোটকর্মী)। নিজস্ব চিত্র

উল্লেখ্য,২০১৮ সালের পঞ্চায়েত নির্বাচনে ইটাহারে একটি ভোটগ্রহন কেন্দ্রে প্রিসাইডিং অফিসার হিসেবে ১৪ মে কাজে যোগ দিয়ে নিখোঁজ হয়ে গিয়েছিলেন রহতপুর হাই মাদ্রাসা স্কুলের শিক্ষক রাজকুমার রায়।ঠিক তার পরদিন রায়গঞ্জের সোনাডাঙি এলাকায় প্রিসাইডিং অফিসার রাজকুমার রায়ের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।এই ঘটনার পর আতঙ্কিত হয়ে পড়েন ভোটকর্মীরা।

Election workers demand for central forces
সুব্রত মহন্ত ( সিনিয়র ডিসি, উত্তর দিনাজপুর)। নিজস্ব চিত্র

আর সেকারনেই এবার লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনী ছাড়া ভোটের ডিউটি করতে নারাজ উত্তর দিনাজপুর জেলার ভোটকর্মীরা।আজ ভোটের প্রশিক্ষন নিতে এসে বুথে বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর সুনিশ্চিত করার দাবি নিয়ে ভোটের প্রশিক্ষন বাদ দিয়ে আন্দোলনে নামেন জেলার ভোটকর্মীরা।

আরও পড়ুনঃ মমতাকে জোকার বললেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়

Election workers demand for central forces
নিজস্ব চিত্র

খবর পেয়ে প্রশিক্ষন কেন্দ্রে ছুটে আসেন জেলা নির্বাচন আধিকারিকেরা।তারা ভোট কর্মীদের প্রশিক্ষন নেওয়ার কথা বলতেই আধিকারিকদের ঘিরে বিক্ষোভ দেখান ভোটকর্মীরা।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485