সিঙ্গাপুরের আইপি অ্যাড্রেসে ভিপিএন ব্যবহার করে সানি লিওনের নামে ফর্মপূরণ

0
75

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলকাতাঃ

আশুতোষ কলেজে ইংরেজি বিষয়ে ভর্তির মেধাতালিকার শীর্ষে সানি লিওনের নাম! এই নিয়ে প্রশ্ন ওঠে বিভিন্ন মহলে। তদন্তে নামে লালবাজার সাইবার শাখা। এরপরই সামনে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য। সম্ভবত ভিপিএন ব্যবহার করে আশুতোষ কলেজে সানি লিওনের নামে ফর্ম ফিল আপ করেছিল কেউ বা কারা।

Sunny Leone | newsfront.co
সানি লিওন

প্রাথমিক তদন্তের পর এমনটাই মনে করছেন লালবাজারের সাইবার শাখার গোয়েন্দারা। কারণ যে আইপি অ্যাড্রেস ব্যবহার করে ফর্ম পূরণ করা হয়েছে তা সিঙ্গাপুরের। গোয়েন্দাদের অনুমান, নিজের পরিচয় গোপন রাখতে ভিপিএন ব্যবহার করেছেন অজ্ঞাতপরিচয় ওই ব্যক্তি। যার ফলে কে এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন তা প্রকাশ্যে আনা আরও জটিল হয়ে গেল তদন্তকারীদের কাছে।

দিন কয়েক আগে প্রকাশিত হয় আশুতোষ কলেজের প্রথম বর্ষের মেধাতালিকা। তাতে দেখা যায়, ইংরেজি অনার্সের তালিকায় সবার উপরে রয়েছে সানি লিওনের নাম। এই নিয়ে রাজ্যজুড়ে শোরগোল শুরু হয়। এর পর একের পর এক কলেজের মেধাতালিকায় পড়ুয়াদের নামের পরিবর্তে বিখ্যাত ব্যক্তিত্বদের নাম ফুটে ওঠে।

আরও পড়ুনঃ ফের রাজ্যের দুই কলেজে মেধা তালিকায় সানি লিওনের নাম! তদন্তে নামল পুলিশ

ঘটনার পর লালবাজারে অভিযোগ জানায় আশুতোষ কলেজ কর্তৃপক্ষ। তার পর তদন্তে নামেন সাইবার গোয়েন্দারা। প্রাথমিক লক্ষ্য ছিল যে আইপি অ্যাড্রেস থেকে ফর্ম পূরণ হয়েছে সেটি খুঁজে বার করা। কিন্তু আইপি অ্যাড্রেস বেরোতে পরিস্থিতি আরও জটিল হয়ে গেল। কারণ আইপি অ্যাড্রেসটি সিঙ্গাপুরের।

আরও পড়ুনঃ আশুতোষ কলেজে ভর্তির মেধা তালিকার শীর্ষে! সানি জানালেন ক্লাসে দেখা হবে

বিশেষজ্ঞদের অনুমান, কেউ ভিপিএন ব্যবহার করে কলেজের ফর্ম ফিল আপ করেছে। ভিপিএন-এর মাধ্যমে ব্যবহার করা হয়েছে সিঙ্গাপুরের আইপি। এর আগে ইন্টারনেটে নিজের পরিচয় গোপন রাখতে অনেককেই ভিপিএন পরিষেবা ব্যবহার করতে দেখা গিয়েছে। এর ফলে তথ্য ফাঁস হলেও তার মালিককে সনাক্ত করা জটিল হয়ে যায়। বেশিরভাগ সময়ই আসল লোককে চিহ্নিত করা সম্ভব হয় না।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here