‘গ্লোবাল ওয়ার্মিং’এর সাথে পরিচিতি ঘটানো ‘আবহাওয়া বিজ্ঞানের পিতামহ’ ওয়ালেস ব্রোয়েকারের জীবনাবসান

0
45

ওয়েবডেস্কঃ

পরলোকগমন করলেন ‘গ্র্যান্ড ফাদার অফ ক্লাইমেট সাইন্স’ ওয়ালেস স্মিথ ব্রোয়েকার ।আমেরিকার এই কিংবদন্তি ভূ-বিজ্ঞানী সোমবার নিউইয়র্ক সিটি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন । মৃত্যু কালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর । বয়স বৃদ্ধি জনিত কারণে বিগত কয়েক মাস ধরে অসুস্থ ছিলেন তিনি ।

১৯৩১ খ্রিস্টাব্দে ২৯শে নভেম্বর এই কিংবদন্তী বিজ্ঞানী জন্মগ্রহণ করেন । কলোম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পৃথিবী ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ওয়ালেস স্মিথ ব্রোয়েকার বিজ্ঞান মহলে আলোড়ন ফেলেছিলেন তাঁর “গ্লোবাল ওয়ার্মিং” অর্থাৎ উষ্ণায়ন তত্ত্বের দ্বারা ।

১৯৭৫ সালে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে ‘জলবায়ু পরিবর্তন : আমরা কি একটি নিশ্চিত গ্লোবাল ওয়ার্মিং এর কিনারায় রয়েছি ?’ এই শিরোনামে তিনি প্রথম তথাকথিত ‘গ্লোবাল ওয়ার্মিং’ শব্দটির ব্যবহার করে বিশ্ব উষ্ণায়ন সম্পর্কিত তাঁর মতবাদ প্রকাশ করেন ।

গ্রিন হাউস গ্যাসের কারণেই যে এই পৃথিবীর তাপমাত্রা ক্রমাগত বাড়ছে ও মেরু প্রদেশের বরফ গলছে এ কথা তিনিই প্রথম বিজ্ঞানীদের কর্ণকুহরে পৌঁছে দিয়েছিলেন।

১৯৭০ এর দিকে পৃথিবী জুড়ে তাপমাত্রা কিছুটা হ্রাস পেয়েছিল । সেই সময় অনেক বিজ্ঞানী অনুমান করেছিলেন পৃথিবীর তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে । কিন্তু একমাত্র তিনিই দাবি করেছিলেন তাপমাত্রা কমার এই ঘটনা সাময়িক, প্রকৃতপক্ষে পরিবেশ দূষণজনিত কারণে গ্রিনহাউস গ্যাসের প্রভাবে পৃথিবীর তাপমাত্রা ক্রমাগত বাড়ছে । তাঁর মতে বিশ্বের কোনো প্রান্তে সাময়িক তাপমাত্রা হ্রাস আসলে একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা । তিনি জানান কার্বন ডাই অক্সাইডের মাত্রা বৃদ্ধি জনিত কারণে বিশ্বের উষ্ণতা বাড়ছে।

সারা জীবন ধরে ভূ বিজ্ঞানের বিভিন্ন শাখায় গবেষণামূলক কাজে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছিলেন এই  বিজ্ঞানী । প্রায় ৪৫০ টি পত্রিকার অনুচ্ছেদ সহ ১০ টি বই লিখেছেন বিজ্ঞানী ওয়ালেস স্মিথ ব্রোয়েকার ।

 

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485